[…]ভেনিজুয়েলার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অবরোধ আরোপ […]ভেনিজুয়েলার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অবরোধ আরোপ

ভেনিজুয়েলার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অবরোধ আরোপ

ইবার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকম:
আপডেট সময়:আগস্ট ১, ২০১৭ , ৬:৪৬ পূর্বাহ্ন
বিভাগ: আন্তর্জাতিক সংবাদ

 ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোকে ‘একনায়ক’ আখ্যা দিয়ে তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মার্কিন সরকার। সোমবার দেশটির অর্থবিভাগ এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা জারির পর প্রতিক্রিয়ায় মাদুরো বলেন, এই নিষেধাজ্ঞায় তিনি ভীত নন।

নিষেধাজ্ঞার আওতায় যুক্তরাষ্ট্রে থাকা মাদুরোর সব সম্পত্তি জব্দ করার ঘোষণা দেওয়ার পাশাপাশি কোনো মার্কিন প্রতিষ্ঠান বা নাগরিককে মাদুরোর সঙ্গে ব্যবসা না করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। গত রোববার ভেনিজুয়েলায় অনুষ্ঠিত বিতর্কিত নির্বাচনের জেরে এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। এই নির্বাচন হওয়ার আগেই ভেনেজুয়েলাকে সতর্ক করেছিল যুক্তরাষ্ট্র। ট্রাম্প তখন বলেছিলেন, যদি এই নির্বাচন হয়, তবে ‘কঠোর অর্থনৈতিক ব্যবস্থা’ নেওয়া হবে। খবর এএফপি’র।

ভেনিজুয়েলার পার্লামেন্টের ওই নির্বাচনকে ঘিরে ব্যাপক বিক্ষোভ হয়। এ সময় সংঘর্ষে কমপক্ষে ১০ জন নিহত হয়েছে।

গতকাল টেলিভিশনে দেয়া এক ভাষণে মাদুরো বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে ট্রাম্পের নেওয়া সিদ্ধান্তগুলো তার মরিয়া মনোভাব ও ঘৃণার পরিচয় বহন করছে। আমি কোনো বিদেশি সরকারের নির্দেশ মানি না এবং ভবিষ্যতেও মানব না। তিনি চাইলে আমাকে নিষেধাজ্ঞা দিতে পারেন। কিন্তু ভেনেজুয়েলার মানুষ মুক্ত ও স্বাধীন থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আর আমি সেই মুক্ত জাতির স্বাধীন প্রেসিডেন্ট।’
এই নির্বাচনের প্রতিবাদে বিক্ষোভকারীরা ব্যাপক বিক্ষোভ করেছে। রোববার রাজধানী কারাকাসের বিভিন্ন রাস্তাঘাট অবরোধ করা হয়েছিল।

ভেনিজুয়েলার এই নতুন গণপরিষদকে সংবিধান পুনর্লিখনের ক্ষমতা দেয়া হয়েছে। এছাড়া এই গণপরিষদ চাইলে বিরোধী দল-নিয়ন্ত্রিত জাতীয় পরিষদকে ভেঙে দিতে পারবে।

মাদুরোবিরোধী রাজনৈতিক জোট রোববারের এই নির্বাচনে অংশ নেয়নি।
তারা দাবি করেছে যে, ৮৮ শতাংশ ভোটার এই নির্বাচনে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেননি।
তারা এই নির্বাচনকে স্বীকৃতি দিতে অস্বীকার করেছে।
অন্যদিকে দেশটির নির্বাচনী কর্মকর্তারা বলছেন, রোববারের নির্বাচনে ৪১ দশমিক ৫ শতাংশ ভোট পড়েছে।



নির্বাচন বার্তা