[…]বাংলাদেশের মানুষের জীবন উন্নত হচ্ছে : আতিকুল ইসলাম ইমন […]বাংলাদেশের মানুষের জীবন উন্নত হচ্ছে : আতিকুল ইসলাম ইমন

বাংলাদেশের মানুষের জীবন উন্নত হচ্ছে : আতিকুল ইসলাম ইমন

ইবার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকম:
আপডেট সময়:আগস্ট ৭, ২০১৭ , ৪:৫৭ পূর্বাহ্ন
বিভাগ: সোশ্যাল মিডিয়া

ওয়ালটন এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে এক দিনে তারা ১ লক্ষাধিক ফ্রিজ বিক্রি করেছে।
১ আগস্ট তাদের ফ্রিজ বিক্রি হয়েছে এক লাখ চার হাজার ৪৬৯টি। কোরবানির ঈদ সামনে রেখে এই ফ্রিজ বিক্রি হয়েছে তা বোঝা যাচ্ছে। গত বছর কোরবানি ঈদের আগে তাদের ফ্রিজ বিক্রি হয়েছিলো প্রায় ৪ লাখ। এবার তাঁরা ৫ লাখ ফ্রিজ বিক্রির টার্গেট নিয়েছে। তাদের এই টার্গেট পুরন হবে বলে মনে হচ্ছে।
এই খবরের তিনটি তাৎপর্য রয়েছে।

১/ দেশি পন্যের দেশি বাজারঃ
দেশি প্রতিষ্ঠানের পন্যের গুনগত মান, সাশ্রয়ী মূল্য, কাস্টমার কেয়ার সার্ভিস বেড়েছে বলেই ওয়ালটন একদিনে লক্ষাধিক ফ্রিজ বিক্রি করতে পেরেছে। এই খবর থেকে এটা বোঝা যায় যে, আমাদের দেশের ১৬ কোটি মানুষের যে বিশাল বাজার রয়েছে সেখানে অভ্যন্তরীণ বাজারটি ধরতে পারলেও বিশাল ব্যাবসা করা সম্ভব। আমাদের দেশের বিশাল ভোক্তাশ্রেনী বিশ্বের যেকোনো ব্যাবসায়ীর জন্যই আকর্ষণীয়। তাই আমাদের দেশে বিনিয়োগ করা উচিত। ধনী প্রবাসীদের উচিত অলস টাকাকে কাজে লাগানো। আর কিছু না হলেও অন্তত আমাদের অভ্যন্তরীণ বাজার আপনার লস হতে দিবে না।

২/ দেশের মানুষের অর্থনৈতিক উন্নতি সম্পর্কে ধারনাঃ
ডাটা ঘাটলে দেখা যাচ্ছে আমাদের দেশের মানুষের মাথাপিছু আয় বেড়েছে। সে বৃদ্ধির হার এতই বেশি যে, মাথা পিছু আয় মাত্র ৮ বছরে দ্বিগুন হয়ে গেছে। যদিও এই অর্জন গৌণ প্রমাণ করতে কেউ কেউ বলছেন মাথা পিছু আয়ের সাথে জীবনযাত্রার মিল নেই, কিন্তু আসলে তাদের দাবি সত্য নয়। কেননা অন্য হিসাব বলছে বাংলাদেশে প্রতিবছর বিপুল সংখ্যক মানুষ দরিদ্র থেকে মধ্য বিত্ত শ্রেনীতে প্রবেশ করছে। বহুজাতিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান বোস্টন কনসালটিং গ্রুপের (বিসিজি) গবেষণা অনুযায়ী, বাংলাদেশে প্রতি বছর ২০ লাখ মানুষ মধ্যবিত্ত শ্রেণীতে উন্নীত হচ্ছে। দারিদ্র্যের হার কমেছে। কারন তাঁরা ইনকাম করতে পারছে বলেই দারিদ্রতা কমেছে। এখন এই বিশাল শ্রেনী যাদের আয় বেড়েছে তারা মার্কেটে ঢুকছে হাতে আরো বেশি টাকা নিয়ে। মার্কেটে তারল্য বেড়েছে। টাকার সার্কুলেশন বেড়েছে। যাই হোক, এক দিনে লক্ষাধিক ফ্রিজ বিক্রির খবরকে আমরা দেখি এদেশের মানুষের ক্রয় ক্ষমতা বৃদ্ধির উদাহরণ হিসেবে।

৩/ গ্রামে গ্রামে বিদ্যুতের আওতায় আসা মানুষের জীবন মানঃ
৮ বছর আগে বাংলাদেশের বিদ্যুতের সুবিধাভোগী জনসংখ্যা ছিলো ৪৭ ভাগ, ২০১৭ তে বিদ্যুতের সুবিধাভোগী ৮০ ভাগেরও বেশি। এই বিপুল সংখ্যক মানুষ বিদ্যুৎ সংযোগ পেয়ে সামর্থ্য অনুযায়ী ফ্রিজ, টিভি, এসি কিনছেন। তাদের জীবনমান উন্নত হচ্ছে। আধুনিক প্রযুক্তির সুবিধা নেয়া শুরু করেছেন। এভাবেই দিনদিন বাংলাদেশের মানুষের জীবন উন্নত হচ্ছে।

ফেসবুক থেকে



নির্বাচন বার্তা