[…]গরম পানি দিয়ে গোসল করা থেকে সাবধান! […]গরম পানি দিয়ে গোসল করা থেকে সাবধান!

গরম পানি দিয়ে গোসল করা থেকে সাবধান!

ইবার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকম:
আপডেট সময়:আগস্ট ৭, ২০১৭ , ৭:৩৫ পূর্বাহ্ন
বিভাগ: লাইফস্টাইল

ইবার্তা ডেস্ক: আমরা অনেকেই ঠান্ডার সময় ছাড়াও গরম পানিতে গোসল করি। কিন্তু গবেষকরা বলেছেন, শতকরা প্রায় ৮০ উপকারিতা বা আপকারিতার কথা না জেনে কেবল কাজটি করে থাকেন। গরম পানিতে গোসল করার ক্ষতিকর দিকগুলো সম্পর্কে আলোকপাত করা হলো:

১. দীর্ঘসময় গরম পানিতে গোসল করলে ছেলেদের ফার্টিলিটি কমে যায়, ফলে বাচ্চা হওয়ার ক্ষেত্রে সমস্যা হয়। তাই ছেলেদের সব সময় স্বাভাবিক পানিতে গোসল করা উচিত কারণ এতে স্পার্ম কাউন্ট বৃদ্ধি পায়।

২. কয়েকটি গবেষণায় দেখা গেছে প্রচন্ড ঠান্ডায় গরম পানিতে গোসল করলে হার্টের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়, এমন কি হার্ট অ্যাটাকের সম্ভবনাও বাড়ে! বিশেষত যাদের হার্টের সমস্যা রয়েছে তাদের গরম পানিতে গোসল করা উচিত নয়।

৩. গরম পানিতে গোসল করলে ত্বকের আদ্রতা হারিয়ে যায়। ফলে স্কিন রুক্ষ হতে শুরু করে। ধীরে ধীরে ত্বকের সৌন্দর্য্য হ্রাস পেতে থাকে। ত্বকের যত্নে গরম পানিতে গোসল করা উচিত নয়।

৪. সম্প্রতি প্রকাশিত এক গবেষণায় দেখা গেছে, ঠান্ডা পানিতে গোসল করলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। ফলে নানাবিধ সংক্রমণে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা হ্রাস পায়। মদ্যপান করার পরে গরম পানিতে গোসল করলে হার্টের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়।

৫. গরম পানিতে গোসল করার সময় রক্ত চাপে পরিবর্তন হতে শুরু করে। ফলে এই সময় সারা শরীরে রক্তের সরবরাহ ঠিক রাখার পাশাপাশি ব্লাড প্রেসার স্বাভাবিক রাখতে হার্টকে বেশি বেশি করে কাজ করতে হয়। তাই যাদের হার্টের সমস্যা রয়েছে তাদের মারাত্মক ক্ষতি হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়।

৬. গরম পানিতে গোসল করার পর অনেকের মাথা ঘোরা, বমি হওয়া বা গা গোলানোর মতো অসুবিধা হয়ে থাকে। গবেষণায় জানা গেছে গরম পানি শরীরে পড়লে রক্তচাপের পরিবর্তন হতে শুরু করে। ফলে শরীরের কর্মক্ষমতা কমে গিয়ে বিভিন্ন উপসর্গ দেখা দিতে থাকে।

৭. খাবারের পর গরম পানিতে গোসল করলে শরীরের ক্ষয় হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিতে পারে।

সুস্থতার জন্য সকলের উচিত স্বাভাবিক তাপমাত্রার পানি দিয়ে গোসল করা।



নির্বাচন বার্তা