[…]স্বাস্থ্যখাতে অভাবনীয় সাফল্য অর্জণ করেছে বাংলাদেশ : ডাব্লিউএইচও […]স্বাস্থ্যখাতে অভাবনীয় সাফল্য অর্জণ করেছে বাংলাদেশ : ডাব্লিউএইচও

স্বাস্থ্যখাতে অভাবনীয় সাফল্য অর্জণ করেছে বাংলাদেশ : ডাব্লিউএইচও

ইবার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকম:
আপডেট সময়:সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৭ , ১২:৫৮ অপরাহ্ন
বিভাগ: স্বাস্থ্য

সংক্রামক ব্যাধি নিয়ন্ত্রণ, প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরিচর্যা, প্রাকৃতিক দুর্যোগকালীন জরুরী স্বাস্থ্য পরিস্থিতি মোকাবেলাসহ স্বাস্থ্যখাতে বাংলাদেশ অভাবনীয় সাফল্য অর্জণ করেছে বলে প্রশংসা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও)।

সংস্থার দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া অঞ্চলের পাঁচ দিনব্যাপী বার্ষিক সম্মেলনে এই প্রশংসা করেন ডাব্লিউএইচও’র মহাসচিব ড. টেড্রস আধানম ঘেব্রিয়েসাস। গত ৬ সেপ্টেম্বর থেকে দ্বীপরাষ্ট্র মালদ্বীপে এই সম্মেলন শুরু হয়েছে। সম্মেলন শেষ হবে ১০ সেপ্টেম্বর। শনিবার ঢাকায় প্রাপ্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়; সম্মেলনে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক। অন্যান্যের মধ্যে সংস্থার মহাপরিচালক ড. টেড্রস আধানম ঘেব্রিয়েসাস, সংস্থার দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া অঞ্চলের পরিচালক ড. পুনম ক্ষেত্রপাল সিং ও বিভিন্ন সদস্য রাষ্ট্রের স্বাস্থ্য মন্ত্রীরা এ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেছেন।

জাহিদ মালেক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্বাস্থ্যখাতের অর্জন, কর্ম পরিকল্পনা এবং কৌশলসমূহ বিস্তারিতভাবে তুলে ধরেন। তিনি অসংক্রামক রোগে নিয়ন্ত্রণে সরকারের পরিকল্পনা এবং কর্মসূচীও তুলে ধরেন।

সম্মেলনে বাংলাদেশ অন্যান্য সদস্য রাষ্ট্রের সাথে মালদ্বীপ ঘোষণাতেও স্বাক্ষর করে। মালদ্বীপ ঘোষণার প্রতিপাদ্য হচ্ছে, ‘জলবায়ু পরিবর্তনজনিত সমস্যা মোকাবেলায় স্বাস্থ্যখাতের সক্ষমতা সৃষ্টি’।

স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী সম্মেলনের মূল কর্মসূচীগুলোতে অংশগ্রহণের পাশাপাশি বিভিন্ন সদস্য রাষ্ট্রের প্রতিনিধিদলের প্রধান এবং আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থার প্রতিনিধিদলের সঙ্গেও সভায় মিলিত হন এবং দেশের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা করেন। তিনি গ্লোবাল ফান্ডের প্রতিনিধি দলের সংগে আলোচনা করেন এবং যক্ষ্মা, ম্যালেরিয়া ও এইচআইভি/এইডস নিয়ন্ত্রণে গ্লোবাল ফান্ডের সহযোগিতার জন্য ধন্যবাদ জানান এবং সহযোগিতা অব্যাহত রাখার অনুরোধ করেন। বাংলাদেশের সাথে গ্লোবাল ফান্ডের সহযোগিতামূলক কর্মসূচী ভালোভাবেই চলছে এবং ফান্ড এ সহযোগিতা অব্যাহত রাখার আশাবাদ করেন গ্লোবাল ফান্ডের প্রতিনিধিরা।



নির্বাচন বার্তা