[…]ফেসবুকের বিরুদ্ধে ট্রাম্পের অভিযোগ নাকচ করলেন জাকারবার্গ […]ফেসবুকের বিরুদ্ধে ট্রাম্পের অভিযোগ নাকচ করলেন জাকারবার্গ

ফেসবুকের বিরুদ্ধে ট্রাম্পের অভিযোগ নাকচ করলেন জাকারবার্গ

ইবার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকম:
আপডেট সময়:সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৭ , ৭:৪৯ অপরাহ্ন
বিভাগ: সোশ্যাল মিডিয়া

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো সবসময়ই তার বিরুদ্ধে কাজ করে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এমন মন্তব্য নাকচ করে দিয়েছেন ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ।

বুধবার এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো ট্রাম্পবিরোধী ভুয়া বার্তা দিয়ে যাচ্ছে। আর ফেসবুক তো সবসময় ট্রাম্পবিরোধী। নিউইয়র্ক টাইমস ও ওয়াশিংটন পোস্টের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ তুলে টুইট বার্তায় ট্রাম্প লেখেন, তাহলে কি সবগুলোর মধ্যে যোগসাজশ আছে?

মার্কিন প্রেসিডেন্টের এ মন্তব্যের উত্তরে জাকারবার্গ বলেন, রাজনীতির দুই পক্ষই ফেসবুকের নানা বিষয় নিয়ে হতাশ, কারণ এসব বিষয় তাদের পক্ষে যায়নি। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রের উদারপন্থীরা ফেসবুকের বিরুদ্ধে ট্রাম্পকে সহায়তা করার অভিযোগ তুলে আসছেন। তাদের অভিযোগ, ২০১৬ সালের মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের ক্ষেত্রে ফেসবুকের মতো সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমকে ব্যবহার করা হয়েছে।

ওই নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ ছিল কি না, সে বিষয়ে তদন্ত করছে যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান ও সাবেক আইনপ্রণেতা ও শীর্ষ কর্মকর্তারা। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ তাদের সাইটটিতে প্রদর্শিত তিন হাজারেরও বেশি রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন শিগগিরই তদন্ত কর্মকর্তাদের কাছে জমা দেবে। ফেসবুকের মতে, গত মার্কিন নির্বাচনের সময় ও পরে ওই বিজ্ঞাপনগুলোতে অর্থায়ন করেছে রাশিয়ার কিছু ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান।

যুক্তরাষ্ট্রের গত নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের বিষয়ে সাক্ষ্য দিতে আগামী ১ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটের ইন্টেলিজেন্স কমিটির কাছে ফেসবুক, টুইটার ও গুগলের প্রতিনিধিদের হাজির হতে বলা হয়েছে। ফেসবুক ও গুগল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। সূত্র: বিবিসি।