[…]রাতে তারেক রহমানের সঙ্গে দুলুর ফোনালাপ, সকালে পথসভায় ককটেল বিস্ফোরণ!

রাতে তারেক রহমানের সঙ্গে দুলুর ফোনালাপ, সকালে পথসভায় ককটেল বিস্ফোরণ!

ইবার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকম:
আপডেট সময়:জুলাই ১৭, ২০১৮ , ৫:৩৬ অপরাহ্ন
বিভাগ: ফিচার

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহীতে সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচারণার সময় বিএনপির পথসভায় ককটেল হামলার ঘটনা ঘটেছে। এসময় সাংবাদিকসহ ৫ জন আহত হয়েছেন।

প্রত‍্যক্ষদর্শীরা জানান, মঙ্গলবার (১৭ জুলাই) সাড়ে দশটার দিকে রাজশাহীর সাগড়পাড়া বটতলা মোড়ে বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুর নেতৃত্বে মেয়রপ্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের নির্বাচনী পথসভা ও মিছিলের প্রস্তুতির সময় দুটি মোটর সাইকেলে চারজন এসে পর পর তিনটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। ঘটনার পরই দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।

বিএনপির মেয়রপ্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের নির্বাচনী পথসভা শুরু হয়। এতে কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুসহ মহানগরের নেতাকর্মীরা অংশ নেন। এ সময়, সেখানে কয়েকটি হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটায় দুর্বৃত্তরা। পরে মোটর সাইকেলে করে পালিয়ে যায় তারা।

এতে একজন দোকানের কর্মচারী, সাংবাদিক আদিত্য রহমান, হাবিব এবং এক পথচারী আহত হন। আহত দুজনকে হাসপাতালে ভর্তি হলে বুলবুল ও আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী খায়রুজ্জামান লিটন তাদের দেখতে যান।
সাগড়পাড়া বটতলা মোড়ে তদন্তের জন্য র‍্যাব ও পুলিশ হাজির হয়ে কাজ করছেন। সেখানে দুই বা তিনটি চকলেট জাতীয় বোমা বিস্ফোরণের আলামত পাওয়া গেছে।
হামলার ঘটনায় একে অপরকে দুষছেন আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতারা।

 

 

 

 

 

রাজশাহীর জনমত বিবেচনা করলে খায়রুজ্জামান লিটনের জনপ্রিয়তা বেশি থাকার পাশাপাশি দলীয় কোন্দল নেই। অন‍্যদিকে বিএনপি প্রার্থী বুলবুলকে প্রতিদ্বন্দ্বিতার পাশাপাশি দলীয় কোন্দল মোকাবেলা করা হচ্ছে। হামলার নেপথ্যে কেউ কেউ নির্বাচন বানচাল করতে বিএনপির অন্তর্দলীয় কোন্দলের কথা বললেও পরিকল্পিতভাবে ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলেই প্রতীয়মান হয়েছে।

জানা গেছে, সাগর পাড়ায় আওয়ামী লীগ ও বিএনপি উভয় দলই সমাবেশ করতে চেয়েছিল কিন্তু কেউই অনুমতি নেয় নি।

কোনো দলের সভা করার অনুমতি না থাকা সত্ত্বেও চান নামে বিএনপির এক স্থানীয় নেতাকে পথসভা শুরুর অনেক আগে থেকে সেখানে দেখা গেছে বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, সিলেট ও বরিশালের চেয়ে বিএনপি রাজশাহীর নির্বাচনকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে। এজন্য বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুকে বিশেষ দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। গতকাল ভেড়িপাড়া পর্যটন মোটেলের ২০১২ নম্বর রুমে অবস্থানরত দুলু গতকাল (১৬ জুলাই) রাত সাড়ে ৭ টা থেকে প্রায় ৮ টা পর্যন্ত প্রায় এক ঘন্টা ধরে তারেক রহমানের সাথে ফোনে কথা বলেছেন। দুলু তারেককে মেয়র পদে বুলবুল জয়লাভ করবে বলে আশ্বস্ত করেন এবং নির্বাচনী কৌশল সম্পর্কে পরামর্শ করেন।
তারেক রহমানের সঙ্গে আলাপের পরপরই তার রুমে বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাদের ডেকে রাসিক নির্বাচনে কে, কোন কেন্দ্রে, কিভাবে এবং কতজন নিয়ে দায়িত্ব পালন করবে তার দিকনির্দেশনা দেন। বুলবুল ও দুলুর সাথে সর্বশেষ বৈঠক করতে দেখা যায় বিএনপি নেতা চান মিয়াকে।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, স্থানীয় জনগণ ও অবস্থানরত সাংবাদিক ও পর্যবেক্ষকদের সূত্র ধরে অনুসন্ধানে হাতবোমা বিস্ফোরণের ঘটনা পরিকল্পিতভাবে করা হয়েছে বলে প্রমাণ মিলছে। ধারণা করা হচ্ছে জনমতকে প্রভাবিত করতে ও সহানুভূতি লাভের উদ্দেশ্যে এই পরিকল্পিত হামলা চালানো হয়েছে।

ফিচার - বিভাগের আরও সংবাদ



নির্বাচন বার্তা