[…]চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্পেশাল জজ কোর্টের পিপিকে দূদকের শোকজ […]চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্পেশাল জজ কোর্টের পিপিকে দূদকের শোকজ

চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্পেশাল জজ কোর্টের পিপিকে দূদকের শোকজ

ইবার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকম:
আপডেট সময়:সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৮ , ১:৪৯ পূর্বাহ্ন
বিভাগ: অপরাধ বার্তা

আদালত প্রতিবেদকঃ 

 

মামলায় ত্রুটি রেখে সাক্ষ্য গ্রহণ সমাপ্ত করার অভিযোগে চট্টগ্রাম দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদকের পিপি মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরীকে শোকজ করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এ ধরনের ত্রুটি/অবহেলা পরিলক্ষিত হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও দুদকের উপপরিচালক (প্রসিকিউশন) কামরুল আহসান স্বাক্ষরিত শোকজ নোটিশে সতর্ক করা হয়।

রাঙ্গামাটি জেলার কাপ্তাই এসএসপির চাল, ডাল, তেলসহ নিত্য ব্যবহার্য জিনিসপত্র আত্মসাতের অভিযোগে তৎকালীন ল্যান্স নায়েক খায়রুল বশরকে আসামি করে কাপ্তাই থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। ১৯৯৪ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি কাপ্তাই থানায় মামলাটি দায়ের করেন এসএসপি কাপ্তাই রাঙ্গামাটির অধিনায়ক খান ফেরদৌস রহমান। এ মামলায় ২০১৬ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি বিভাগীয় স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল রায় প্রদান করেন। রায়ে একমাত্র আসামি ল্যান্স নায়েক খায়রুল বশরকে খালাস প্রদান করেন। এদিকে দুদক কর্মকর্তারা বলছেন, তদন্তকারী কর্মকর্তার তদন্তে অবহেলা এবং জব্দকৃত কাগজপত্র আদালতে উপস্থাপন না করায় আসামি খালাস পেয়েছে। এদিকে পিপি মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী যুগান্তরকে জানান, এ মামলায় আমার দিক থেকে কোনো ত্রুটি ছিল না।

মেজবাহউদ্দিন চৌধুরী

উল্লেখ্য যে, বিভাগীয় স্পেশাল জজ আদালতের পিপি মেজবাহউদ্দিনের অধীনে এই আদালতেই বিচারাধীন রয়েছে ২৪শে জানুয়ারী চাঞ্চল্যকর গ্ণহত্যা ্মামলাটি। যেখানে আসামীপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করছেন এডভোকেট এহসানুল হক হেনা। যিনি যুদ্ধাপরাধী সাকা চৌধুরীরও আইনজীবী ছিলেন। সম্পর্কের দিক দিয়ে পিপি মেজবাহউদ্দিন সাহেব আবার হেনা সাহেবের ভাগ্নেও হন। এমতাবস্থায় মামলার আদৌ কোন সুরাহা হবে কিনা তাই নিয়েই উদ্বিগ্ন সংশ্লিস্ট বিচারপ্রার্থী মহল।



নির্বাচন বার্তা