বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:৪৩ অপরাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ
গোলাম আজমের ভাগ্নে ও জামাতি টাকায় চলা ছাত্র পরিষদের মুখোশ খুলে যাচ্ছে ! শেখ হাসিনাকে জন্মদিনে মোদী পাঠালেন ফুল, চীনের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন পঁচাত্তরের খুনিদের দায়মুক্তি অধ্যাদেশ “ধর্ষিত” মামুনের স্ক্রিনশপ জালিয়াতি ফাঁস : ইলিয়াস সহ সুশীলদের কটাক্ষ জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ : বিশ্ব সভায় বাংলা ভাষার প্রথম আনুষ্ঠানিক প্রতিনিধিত্ব গার্ডিয়ানে প্রকাশিত শেখ হাসিনার নিবন্ধ: ‘আ থার্ড অফ মাই কান্ট্রি ওয়াজ জাস্ট আন্ডারওয়াটার। দ্য ওয়ার্ল্ড মাস্ট অ্যাক্ট অন ক্লাইমেট’ হেফাজতের কর্তৃত্ব যাচ্ছে দেওবন্দের কাফের ঘোষিত জামায়াতের কব্জায় ! অনলাইনে মিলছে টিসিবির পেঁয়াজ আজ টিউলিপ সিদ্দিকের জন্মদিন বাংলাদেশের সঙ্গে রাজনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক বাড়াতে চায় যুক্তরাষ্ট্র

রোহিঙ্গারা ব্যাপক আর্থ-সামাজিক চাপ সৃষ্টি করেছে: প্রধানমন্ত্রী

ইবার্তা ডেস্ক
আপডেট : মঙ্গলবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০১৮

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কক্সবাজারে অবস্থানরত মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত হয়ে আশ্রয় গ্রহণে বাধ্য হওয়া বিপুলসংখ্যক রোহিঙ্গার উপস্থিতি বাংলাদেশের ওপর ব্যাপক আর্থ-সামাজিক, পরিবেশগত এবং জনসংখ্যার ওপর চাপ সৃষ্টি করেছে।
 
সুইডেনের নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত শার্লট শ্যালেটার প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় সংসদ ভবন কার্যালয়ে শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য স্বাক্ষাতে এলে তিনি এ কথা বলেন। বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।
 
প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রত্যাবাসনের বিষয়ে মিয়ানমারের সাথে আলোচনা করেছে এবং এ বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে। রোহিঙ্গাদের অস্থায়ী আশ্রয় প্রদানে সরকার একটি দ্বীপকে উন্নয়ন করছে।
 
শার্লট রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে তার দেশের পূর্ণ সমর্থনের বিষয়ে পুনরায় আশ্বাস প্রদান করেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুতে সুইডেনের শক্তিশালী রাজনৈতিক এবং মানবিক ভূমিকার প্রশংসা করেন।
 
বৌদ্ধ অধ্যুষিত মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সেনা অভিযানের পর সৃষ্ট সংকটে গত বছরের ২৫ আগস্ট থেকে প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় গ্রহণে বাধ্য হয়।
 
মিয়ানমারে যে নৃশংসতা চলছে, সেটিকে জাতিসংঘ ‘জাতিগত নিধনের একটা ধ্রুপদী উদাহরণ’ হিসেবে বর্ণনা করেছে।


আরও সংবাদ