বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:১৩ পূর্বাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ
গার্ডিয়ানে প্রকাশিত শেখ হাসিনার নিবন্ধ: ‘আ থার্ড অফ মাই কান্ট্রি ওয়াজ জাস্ট আন্ডারওয়াটার। দ্য ওয়ার্ল্ড মাস্ট অ্যাক্ট অন ক্লাইমেট’ হেফাজতের কর্তৃত্ব যাচ্ছে দেওবন্দের কাফের ঘোষিত জামায়াতের কব্জায় ! অনলাইনে মিলছে টিসিবির পেঁয়াজ আজ টিউলিপ সিদ্দিকের জন্মদিন বাংলাদেশের সঙ্গে রাজনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক বাড়াতে চায় যুক্তরাষ্ট্র প্রধানমন্ত্রীকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর ফোন ফ্রন্টিয়ার, ইমার্জিং ও ডেভেলপড মার্কেট রিটার্নে সবার ওপরে বাংলাদেশ মুজিববর্ষে প্রাপ্তি ও প্রত্যাশা হাসি ফিরেছে পাট চাষিদের মুখে বাংলাদেশের পুঁজিবাজার বিশ্বসেরা : ব্লুমবার্গের প্রতিবেদন

ঠাকুরগাঁওয়ের জেলা প্রশাসকের বদলি প্রত্যাহারের দাবিতে মানব বন্ধন

ইবার্তা ডেস্ক
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১ মার্চ, ২০১৮

মোঃ আবু সালেহ্ মুসা, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগাঁওয়ের জেলা প্রশাসকের বদলি পত্যাহারের দাবিতে ফুসে উঠেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে জেলার শিক্ষার্থী, অভিভাবক, রাজনৈতিক নেতাসহ বিভিন্ন পেশাজীবি মানুষ।

ফেসবুকে জেলা প্রশাসকের বদলি প্রত্যাহারের দাবিতে নানা রকম হৃদয় বিতারক স্ট্যাস্টাস পোষ্ট করছেন বিভিন্ন জেলা প্রশাসক প্রেমী মানুষ। ২৭ ফেব্রুয়ারি (মঙ্গলবার) সকালে বদলি আদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে শহরের চৌরাস্তায় মানববন্ধন ও ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন ঠাকুরগাঁও সাধারণ জনগণ নামে ব্যানার ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে ইতোমধ্যে।

ব্যানারে লেখা রয়েছে “এক দফা, এক দাবি” জেলা প্রশাসকের বদলি বাতিল চাই। ঠাকুরগাঁওয়ের ফেসবুক ব্যবহারকারীরা ওই ব্যানার নিজ নিজ টাইম লাইনে পোষ্ট করছেন সকলকে মানববন্ধন ও ধর্মঘটের ডাকে সাড়া দেওয়ার জন্য। ফেসবুক ব্যবহারকারী সুমন আজিজ নামে এক ব্যক্তি ফেসবুকে কমেন্ট করেছেন, ঠাকুরগাঁও জেলার জেলা প্রশাসক জনাব মোঃ আব্দুল আওয়াল স্যার।

আমি ঠাকুরগাঁ জেলার পৌর শহরের ০৭ নং ওয়াড়ের গরীব ঘরের একজন সাধারন ছেলে। আমি কোন গণমাধ্যম কর্মী নই বা কোন সামাজিক মিডিয়ার সাথেআমার কোন প্রকার সম্পৃক্ততা নেই। ভাল কিছুকে চিরস্থায়ী করা বা আকড়েধরার ব্যকুলতা মাত্র।

ঠাকুরগাঁও জেলায় দায়িত্ব পালনরত অবস্থায় বিভিন্ন সামাজিক মিডিয়ার মাধ্যমে যতটুকু দেখেছি সত্য ও নিষ্ঠার পথে চলা, ঠাকুরগাঁও জেলার সর্বস্তরের মানুষের সাথে নিবিড়ভাবে মেশা, গ্রামের কৃষক কুলের মাঝে উৎসাহের প্রতিক হয়ে অবাধ বিচরন এবং বিশেষ করে ঠাকুরগাঁও জেলার গরীব, দুস্থ, অসহায় ও নির্যাতিত ব্যক্তি বা পরিবারের পাশে দাড়ানো সত্যিই অবাক ও মুগ্ধ করার ব্যক্তিত।

আমি বা আমরা ঠাকুরগাঁও বাসী এই বটগাছ বা মাথার ছায়া সমতুল্য অবিভাবকে হারাতে চাই না। স্যালুট স্যার কে। পরিশেষে আমি দেশের(বাংলাদেশ) অবিভাবক বৃন্দের প্রতি একা গ্রচিত্তে আকুল আবেদন জানাচ্ছি যে, আমার বা আমাদের ঠাকুরগাঁও বাসীর বটগাছেরর ছায়া সমতুল্য মহান অবিভাবকে আমাদের কাছ থেকে কেড়ে নিয়েন না। আমারা এমন মহান ব্যক্তিকে হারাতে চাইনা।

কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নেতা রাজিউর রেজা খোকন চৌধুরী লেখেছেন, প্রকৃত অর্থেই উনার কর্মদতা, দায়িত্ববোধ এবং মানুষের প্রতি ভালবাসা আমাদের মনে জায়গা করে নিয়েছে। সৃষ্টিকর্তা তাকে আমৃত্যু মানুষের সেবা করার সুযোগ দান করুন। ঠাকুরগাঁওয়ের সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অরুনাংশু দত্ত টিটো তার ফেসবুকে পোষ্ট করেছেন,ডিসি সাহেব এত অল্প সময়ে বদলী হয়ে চলে যাবেন তা কখনো ভাবি নি। সত্যি যদি উনি এখান থেকে চলে যান তবে অনেক কষ্ট পাবো। ঠাকুরগাঁও চেম্বার অব কর্মাসের পরিচালক মামুন অর রশিদ একটি পোষ্টে কমেন্ট করেছেন, এই মানুষটিকে রাখার জন্য সবাই চেষ্টা করি।

এমন ডিসি স্যার হয়ত আর পাব না। এমন মানুষ পাওয়া অনেক দুষ্কর। সকল প, সকল ঠাকুরগাঁওবাসী, বিশেষ করে নেতৃবৃন্দকে বিনীত অনুরোধ করছি, মানুষটিকে রাখার জন্য চেষ্টা করুন, ব্যবস্থা নিন। আমাদের ঠাকুরগাঁ য়ের উন্নয়নের অগ্রগতির এর স্বার্থে।

জেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি পোষ্ট করেছেন, আমার/আমাদের ভাল লাগার একজন মানুষ জেলা প্রশাসক জনাব আব্দুল আওয়াল। আমাদের ঠাকুরগাঁও এর মাটি ও মানুষের জন্য এমন কিছু করার চেষ্টা করেছেন যা আমাদের হৃদয় ছুঁয়ে গেছে।

চাকুরী সূত্রে আসা! চলেতো একদিন যেতেই হতো! তাই মন থেকে শুভ কামনা ছাড়া কিইবা দিতে পারি! যেখানেই থাকবেন,ভাল থাকবেন আমাদের হৃদয়ের ভালবাসা ও দোয়া আপনার সাথেই থাকবে সবসময়……। তাজুল ইসলাম নামে একটি কলেজের অধ্যক্ষ লেখেছেন, তার থাকা না থাকার প্রশ্ন যখন প্রতিটি টেবিলের আলোচনার বিষয় তখন আপনি ধরে নিতে পারেন তিনি একজন কার্যকর সংবেদনশীল মানুষ এবং একই সংগে একজন দ প্রশাসক ছিলেন। অবশেষ মুহূর্তে তাঁর থাকা না থাকার চেয়েও বেশী গুরুত্বপূর্ণ তিনি সবার মধ্যে এক সৃষ্টশীল ভাবনার ভ্রূণ তৈরি করতে পেরেছেন। এমন ধারনা আমিও পোষণ করি। উনার এভাবে চলে যাওয়া কিছুতেই আমি মানতে পারছি না।

উনাকে আবার এই জেলায় পদায়ন করা হোক এ ব্যপারে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বরত কর্মকর্তাদের কাছে দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। উল্লেখ্য, গত ২৫ ফেব্রুয়ারি দেশের ২২ জন জেলা প্রশাসকের রদ-বদলের প্রজ্ঞাপন জারি হয়েছে। সেই প্রজ্ঞাপনে ঠাকুরগাঁওয়ের গণমানুষের মানবিক ডিসি হিসেবে পরিচিত আব্দুল আওয়ালকেও যশোর জেলা প্রশাসক হিসেবে বদলির আদেশ জারি করা হয়েছে।

এই আদেশ জারির বার্তা শুনে ঠাকুগোঁওয়ের মানুষের হৃদয়ে ভাটা পেয়েছে। বদলির বার্তা শুনে শোকাহত হয়েছে জেলার সাধারণ মানুষ। জারিকৃত আদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে ফুঁসে উঠেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ব্যবহারকারীরা। সকলে এই মানুষটিকে ঠাকুরগাঁওয়ের উন্নয়নের ও মানবিকতার ধারা অব্যাহত রাখার জন্য আকুল আবেদন করছেন।


আরও সংবাদ