1. অন্যরকম
  2. অপরাধ বার্তা
  3. অভিমত
  4. আন্তর্জাতিক সংবাদ
  5. ইতিহাস
  6. এডিটরস' পিক
  7. খেলাধুলা
  8. জাতীয় সংবাদ
  9. টেকসই উন্নয়ন
  10. তথ্য প্রযুক্তি
  11. নির্বাচন বার্তা
  12. প্রতিবেদন
  13. প্রবাস বার্তা
  14. ফিচার
  15. বাণিজ্য ও অর্থনীতি

ট্যাক্স জালিয়াতি ও একজন ড. ইউনূস

আশরাফুল আলম খোকন : ইবার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকম
শনিবার, ১১ মার্চ, ২০২৩

নামি দামি মানুষের কাজ কর্ম উচ্চ মানেরই হওয়া উচিত। ড. ইউনূস শান্তিতে নোবেল পেয়েছেন নাকি বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য। কোথায়, কবে, শান্তিতে কোন অবদান রেখেছেন, তা তিনি আর নোবেলদাতারা ভালো বলতে পারবেন। আমরা আমজনতা শুধু ওনার কাছে নোবেল লোরিয়েটের মতোই উঁচুমানের কাজ আশা করি।

অনেকে চোর-ডাকাত হবে, দুর্নীতিবাজ ও লুটতরাজকারী হবে। তাদের মত কাজকর্ম ড. ইউনূসকে মানায় না, কারণ তিনি একজন নোবেল লরিয়েট। আসেন ওনার দুই-একটা কাজের নমুনা দেই। এইসব সুকর্ম নাকি অপকর্ম সেই বিবেচনা আপনাদের হাতে।

যতদূর জানি, গ্রামীণ ফোনে তিনি টাকা বিনিয়োগ করেছিলেন গ্রামীণ ব্যাংক থেকে। দেশব্যাপী গ্রামীণ ব্যাংকের সদস্যরাও জানতো গ্রামীণ ফোনের লাভ লোকসানের অংশীদার তারা। কিন্তু গরীব মানুষের টাকা ব্যবহার করে, গ্রামীণ ফোনের শেয়ার তিনি নিয়েছিলেন নিজের নামে। যা পরে টেলিনর কোম্পানির কাছে বিক্রি করে নিজে মুনাফা নিয়েছেন।

বিদেশ থেকে ট্যাক্স ফ্রি আয়ের নিয়ম হচ্ছে, আপনি দেশি অথবা প্রবাসী যাই হোন না কেন, একাধারে ছয় মাসের বেশি বিদেশ থেকে ইনকাম করলে ওই টাকা ট্যাক্স ফ্রি হয়। ড. ইউনূস ছয়দিন বিদেশে থেকেও ওই টাকা ট্যাক্স ফ্রি হিসাবে দেখিয়েছেন, যা পুরোপুরি ট্যাক্স জালিয়াতি।

তিনি তার নিজের ইনকামের টাকা গ্রামীণ ব্যাংকে দান হিসাবে দেখিয়েছেন। যে কারণে তিনি দাবি করেন যে নিজে টাকা দিয়ে গ্রামীণ ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করেছেন। কিন্তু বিপরীত চিত্র হচ্ছে, গ্রামীণ ব্যাংকের হিসাবে ওই টাকা লোন হিসাবে দেখানো আছে। অর্থাৎ এই টাকাটা গ্রামীণ ব্যাংক ঋণ হিসাবে নিয়েছে, যা পরে গ্রামীণ ব্যাংক শোধ করবে। এই পুরো নাটকটি সাজিয়ে তিনি ট্যাক্স ফাঁকি দিয়েছেন।

হয়তো ভেবেছিলেন, ওনার মত প্রভাবশালী মানুষকে কোনো সরকারই ঘাঁটাতে আসবে না। কিন্তু তথ্য কখনোই চাপা থাকে না। এই তথ্যগুলো যে ধরা পড়ে যাচ্ছে, বিভিন্ন মাধ্যমে তা তিনি ইতিমধ্যে জেনে গিয়েছেন। আর এই জন্যই বিদেশিদের বিবৃতি বাণিজ্যটা আগেই সেরে ফেলেছেন। বৃষ্টি আসতে পারে এই ভয়ে মাথায় ছাতা নিয়ে বসে আছেন।

লেখক : আশরাফুল আলম খোকন – প্রবাসী সাংবাদিক ও সাবেক ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়।


সর্বশেষ - জাতীয় সংবাদ