শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ০৮:১৪ অপরাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ
মসজিদের দানের টাকা ভাগাভাগি নিয়ে মামুনুল অনুসারী হেফাজতের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, নিহত ১ হেফাজতভক্ত সাম্প্রদায়িক অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করছে ছাত্রলীগ : পাওয়া মাত্রই বহিষ্কার মুজিবনগর দিবসের সুবর্ণজয়ন্তীতে ‘সোনার বাংলার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র প্রতিহত করতে’ প্রধানমন্ত্রীর দৃঢ়প্রতিজ্ঞা বিএনপি কেন পালন করে না মুজিবনগর দিবস? মামুনুল কাণ্ডে টালমাটাল হেফাজত যেকোনো মুহূর্তে গ্রেফতার মামুনুল কিংবদন্তী কবরীর জীবনাবসান চট্টগ্রামের ৩০০ পরিবার পেল প্রধানমন্ত্রীর উপহার শিবিরের স্টাইলে কৃষক লীগ নেতার পায়ের রগ কেটে দিল ‘হেফাজত’ করোনা রোগীদের শয্যা প্রাপ্তিতে ছাত্রলীগের মানবিক টিম

হেফাজতে ভাঙনের সুর মামুনুলের রিসোর্টকাণ্ডে

ইবার্তা ডেস্ক
আপডেট : শুক্রবার, ৯ এপ্রিল, ২০২১

‘আমাদের মধ্যকার এই পারস্পরিক ভেদাভেদ আমরা ভুলে যাব। যদি আমরা কেউ কোনো দোষ করে থাকি, তাহলে তা সাংগঠনিকভাবে সংশোধনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে এবং যে কোনো প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ গ্রহণ করবে।’

কওমি ঘরনার রাজনৈতিক নেতা মামুনুল হক তার রিসোর্টকাণ্ডকে ঘিরে হেফাজতে ইসলামে যে ভাঙনের শঙ্কা করছেন, সেটি তার আধা ঘণ্টার ফেসবুক লাইভের বক্তব্যে স্পষ্ট হয়েছে।

 

মার্চের শেষে দেশের নানা স্থানে তাণ্ডব চালানো ধর্মভিত্তিক সংগঠনটির এ যুগ্ম মহাসচিব সরকারের কাছে ‘শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান’ এর বার্তা দিয়েছেন। মানুষের ব্যক্তিগত স্বাধীনতার ওপরও জোর দিয়েছেন তিনি। তার এই আকস্মিক বোধদয়ে অনেকেই বিস্ময় প্রকাশ করেছেন।

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ের রিসোর্টকাণ্ডে বিপাকে পড়ার পাঁচ দিন পর বৃহস্পতিবার বিকেলে তৃতীয় দফায় ফেসবুক লাইভে আসেন তিনি। কথা বলেন ৩২ মিনিট।

এই লাইভে রিসোর্টে ঝর্ণাকে তার প্রকৃত স্ত্রী আমিনা তাইয়্যেবা পরিচয় দেয়ার কারণ হিসেবে ভয় পাওয়ার কথা জানান। স্ত্রী ও ঝর্ণা বিষয়ে যেসব ফোনালাপ ফাঁস হয়েছে, সেগুলো ফেসবুকে আসায় ব্যক্তিগত গোপনীয়তা লঙ্ঘন হয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, তিনি আইনি ব্যবস্থা নেবেন। নিজের অপরাধ ধামাচাপা দিতেই এসব বলছেন বলে অনেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিক্রিয়া জানান।

স্ত্রী আমিনা তাইয়্যেবাকে ঝর্ণার বিষয়ে অসত্য তথ্য দেয়ার পক্ষে যুক্তি দেখাতে গিয়ে তিনি বলেন, স্ত্রীর সঙ্গে সীমিত পরিসরে অসত্য বলার সুযোগ আছে।

নানা স্ববিরোধিতায় পরিপূর্ণ এই ফেসবুক লাইভে তিনি নিজ সংগঠন হেফাজতে ইসলামের প্রতি আহ্বান জানান তার ওপর আস্থা রাখতে। বলেন, হেফাজতের শীর্ষ নেতৃত্ব তাকে সংশোধনের সুযোগ করে দিতে পারে। অনেকে বলছেন, হেফাজত থেকে বহিষ্কার নিয়ে অজানা আতংক কাজ করছে মামুনুল হকের মনে।

 

নিজের সঙ্গে রিসোর্টের সঙ্গীনি ও স্ত্রীর সঙ্গে তার বোনের পাশাপাশি রিসোর্ট কাণ্ড নিয়ে হেফাজত নেতাদের যে কথোপকথন ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে, সেগুলো নিয়েও কথা বলেন মামুনুল।

একাধিক কথোপকথনে এটা স্পষ্ট যে, মামুনুল যে দ্বিতীয় বিয়ের দাবি করেছেন, সেটির সত্যতা নিয়ে খোদ হেফাজতেই প্রশ্ন আছে। মামুনুলকে হেফাজত থেকে বাদ দেয়ার আলোচনাও আছে।

 

 

তিনি বলেন, ‘হেফাজতে ইসলামের আমির জুনাইদ বাবুনগরী রয়েছেন, সম্মানিত মহাসচিব রয়েছেন, তারা যে কোনো সিদ্ধান্ত হেফাজতে ইসলামের বিষয়ে গ্রহণ করবেন।’


আরও সংবাদ