রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:২৬ পূর্বাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ
পঁচাত্তরের খুনিদের দায়মুক্তি অধ্যাদেশ “ধর্ষিত” মামুনের স্ক্রিনশপ জালিয়াতি ফাঁস : ইলিয়াস সহ সুশীলদের কটাক্ষ জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ : বিশ্ব সভায় বাংলা ভাষার প্রথম আনুষ্ঠানিক প্রতিনিধিত্ব গার্ডিয়ানে প্রকাশিত শেখ হাসিনার নিবন্ধ: ‘আ থার্ড অফ মাই কান্ট্রি ওয়াজ জাস্ট আন্ডারওয়াটার। দ্য ওয়ার্ল্ড মাস্ট অ্যাক্ট অন ক্লাইমেট’ হেফাজতের কর্তৃত্ব যাচ্ছে দেওবন্দের কাফের ঘোষিত জামায়াতের কব্জায় ! অনলাইনে মিলছে টিসিবির পেঁয়াজ আজ টিউলিপ সিদ্দিকের জন্মদিন বাংলাদেশের সঙ্গে রাজনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক বাড়াতে চায় যুক্তরাষ্ট্র প্রধানমন্ত্রীকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর ফোন ফ্রন্টিয়ার, ইমার্জিং ও ডেভেলপড মার্কেট রিটার্নে সবার ওপরে বাংলাদেশ

আরও ৬ মামলায় জামিন পেতে হবে খালেদাকে

ইবার্তা ডেস্ক
আপডেট : বুধবার, ১৬ মে, ২০১৮

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় সর্বোচ্চ আদালত জামিন দিলেও এখনই কারামুক্তি পাচ্ছেন না বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

এ মামলায় জামিনে মুক্ত হতে বাধা না থাকলেও খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আরও বেশ কিছু মামলা থাকায় সহসাই মুক্তি পাচ্ছেন না তিনি।

খালেদা জিয়ার মামলা প্রসঙ্গে তাদের আইনজীবীরা জানিয়েছেন,খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে সর্বমোট মামলার সংখ্যা প্রায় ৩৮টি। এর মধ্যে কুমিল্লার তিনটি মামলা, ঢাকার দুটি, নড়াইলের একটি মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। এ ছয়টি মামলায় খাালেদা জিয়াকে জামিন নিতে হবে।

খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়ে জানতে চাইলে তার আইনজীবী বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ সাংবাদিকদের বলেন, “কিছুটা বাধা আছে। কারণ সরকার নানা কৌশলে চেষ্টা করবে তার মুক্তিটা বিলম্বিত করার জন্য। এ কারনেই নিচের আদালতের কতগুলো মামলায় তাকে আসামি দেখানো হয়েছে। সে মামলাগুলোতে তার জন্য আমাদের জামিন নিতে হবে। সেই জামিন নিতে যতটুকু সময় লাগে সেই সময়টুকু পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

তিনি বলেন, আমরা খুব দ্রুত চেষ্টা করছি। আপিল বিভাগ যেহেতু তার জামিন বহাল রেখে দিয়েছেন, এখন নিম্ন আদালতে জামিন পেতে আর খুব বেশি অসুবিধাহবে না। সুতরাং খুব শিগগির আমরা চেষ্টা করব ওই মামলাগুলোতে ওনার (খালেদা জিয়া) জামিন নিতে। কারণ আমাদের তো একটা আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমেএগুলো সম্পন্ন করতে হবে। সুতরাং সেই জামিনগুলো পাওয়ার পরে খালেদা জিয়া আমাদের মাঝে ফিরে আসবেন এবং খুব শিগগির ফিরে আসবেন ’

এ বিষয়ে সাবেক আইন মন্ত্রী ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ সারাবাংলাকে বলেন, এই মামলায় যেহেতু সর্বোচ্চ আদালত তাকে জামিন দিয়েছেন। সে ক্ষেত্রে এই রায়ের কপি জেলে গেটে নিয়ে গেলে তিনি মুক্তি পাবেন। কিন্তু যদি অন্য মামলায় তাকে আটক দেখানো হয় তাহলে সেসব মামলা থেকেও তাকে জামিন নিতে হবে। তবেই তিনি মুক্তি লাভ করবেন।


আরও সংবাদ