1. [email protected] : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
  2. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  3. [email protected] : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
  4. [email protected] : নিউজ এডিটর : নিউজ এডিটর
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সেনাবাহিনী প্রস্তুত : সেনাপ্রধান - ebarta24.com
  1. [email protected] : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
  2. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  3. [email protected] : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
  4. [email protected] : নিউজ এডিটর : নিউজ এডিটর
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সেনাবাহিনী প্রস্তুত : সেনাপ্রধান - ebarta24.com
শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ০২:০৭ অপরাহ্ন

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সেনাবাহিনী প্রস্তুত : সেনাপ্রধান

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
  • সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ২০ জুন, ২০২২

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সেনাবাহিনীর প্রস্তুতির কথা জানিয়েছেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ।

সেনাপ্রধান বলেন, সেনাবাহিনী দুর্গত মানুষের সহায়তায় যা কিছু করা সম্ভব তা করে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে চট্টগ্রাম, কুমিল্লা, ঢাকা সাভারসহ বিভিন্ন ক্যান্টনমেন্টের সেনাসদস্যদের বন্যার্তদের সহায়তায় নিয়োজিত করা হয়েছে। অনেককে স্ট্যান্ডবাই রাখা হয়েছে।সিলেট অঞ্চলের বন্যাদুর্গতদের সহায়তা করতে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

সিলেটের বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শনকালে প্রধানমন্ত্রীর সুস্পষ্ট নির্দেশনার কথা উল্লেখ করে এ কথা বলেন সেনাপ্রধান । সিলেটের কোম্পানিগঞ্জ উপজেলার বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শন করে পরে উপজেলার বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্কে ত্রাণ বিতরণ করেন তিনি।

সেনাপ্রধান বলেন, সিলেট অঞ্চলে যা হয়েছে, এমন দুর্যোগ আসতে পারে তা কেউ ভাবেনি। এটা অভাবনীয় বিপর্যয়। রেকর্ড পরিমাণ বৃষ্টিপাত হয়েছে। আমরা দুর্গত মানুষের সহায়তায় সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, সেনাবাহিনী এর চেয়ে ভালো কাজ করতে পারত কি না, আমরা এই আলোচনায় যেতে চাই না। আমাদের সর্বোচ্চটুকু দিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়াতে চাই। তবে বৈরী আবাহাওয়া, প্রবল স্রোত, টানা বৃষ্টি এবং নেটওয়ার্ক না থাকার কারণে কাজের গতি কিছুটা বাঁধাগ্রস্ত হচ্ছে।

সেনাপ্রধান আরও বলেন, দ্রুত এই পানি নেমে যাবে বলে মনে হচ্ছে না। তবে বন্যার পানি কমলেও মানুষের দুর্ভোগ সহসা কমবে না। ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতিও হবে। পরবর্তী ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় সেনাবাহিনী প্রস্তুতি নিচ্ছে। আমরা ত্রাণ ও চিকিৎসা প্রদান শুরু করেছি। সেনাসদস্যদের বলেছি কষ্ট যতই হোক মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে হবে। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে এই দুর্যোগ মোকাবিলা করা সম্ভব হবে।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাস্টার জেনারেল অফ অর্ডন্যান্স মেজর জেনারেল মো. আবু সাঈদ সিদ্দিক, ১৭ পদাতিক ডিভিশন জিওসি মেজর জেনারেল হামিদুল হক ও সেনাসদরের সামরিক কর্মকর্তা ও সিলেট জেলার পুলিশ সুপার।

এদিকে আইএসপিআর সূত্রে জানা গেছে, গত ১৭ জুন থেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সিলেট অঞ্চলের ১৭ পদাতিক ডিভিশন সিলেট জেলার সিলেট সদর, কোম্পানীগঞ্জ, কানাইঘাট, জয়িন্তাপুর ও গোয়াইনঘাট উপজেলা এবং সুনামগঞ্জ জেলার সুনামগঞ্জ সদর, ছাতক, দোয়ারা বাজার, দিরাই ও জামালগঞ্জ উপজেলা এবং কুমারগাঁও বিদ্যুৎ কেন্দ্রে বন্যা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে দায়িত্ব পালন করছে।

সেনাবাহিনীর অন্যান্য ফরমেশন হতে সিলেট এলাকায় উদ্ধার কাজে সহায়তার জন্য বিভিন্ন নৌযান মোতায়েন করা হয়েছে।

এছাড়াও, কমান্ডো ব্যাটালিয়ানের সদস্যরা উদ্ধার অভিযানে অংশগ্রহণ করছে। নৌবাহিনীর একটি দল সিলেট এলাকায় সেনাবাহিনীর সঙ্গে উদ্ধার কাজে অংশ নিচ্ছে।

নেত্রকোনার বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় ১৮ জুন থেকে ঘাটাইল অঞ্চল হতে ১৯ পদাতিক ডিভিশনের ১২৫ জন সেনাসদস্য খালিয়াজুরী উপজেলায় বন্যা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ, উদ্ধার কার্যক্রম, ত্রাণ বিতরণ এবং চিকিৎসা সহায়তা দিচ্ছে।

এছাড়া সিলেট ও সুনামগঞ্জ থেকে ২ হাজার ১০ জন বন্যাদুর্গত ব্যক্তিকে উদ্ধার করে বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে বলেও আইএসপিআর সূত্রে জানা গেছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ
ebarta24.com © All rights reserved. 2021