শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৪:০১ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ
মডেল মসজিদ ও শেখ হাসিনার দূরদর্শিতা সারা বছর শিক্ষা কার্যক্রম চালু রাখতে হবে ‘শিক্ষা চ্যানেল’ দেশেই হবে ভ্যাকসিন উৎপাদন : প্রধানমন্ত্রী তামাক, ধূমপান, জর্দা ও গুল প্রাণঘাতী নেশা : প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে নবীন -প্রবীণদের কাছে ভিডিও শুভেচ্ছা বার্তা আহবান হেফাজত নেতার আড়ালে ‘আনসার আল ইসলাম’ জঙ্গি : চট্টগ্রামে গ্রেপ্তার টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) বাস্তবায়নে শীর্ষ তিনে বাংলাদেশ কমপক্ষে তিনটি করে গাছ লাগান : প্রধানমন্ত্রী মামলা-মোকদ্দমার প্রাথমিক জ্ঞান ও ভোগান্তি এড়াতে করণীয় পরীমণিকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা মামলায় নাসিরসহ ৩ জন গ্রেফতার

হ্যাডলির পর দ্বিতীয় কীর্তি অলরাউন্ডার মঈন আলীর

প্রতিবেদক:
আপডেট : মঙ্গলবার, ৮ আগস্ট, ২০১৭

ইবার্তা টোয়েন্টিফোর ডটকম:  ক্রিকেট ইতিহাসে ‘চার’ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ২৫০ বা ততোধিক রান ও অন্তত ২০ বা ততোধিক উইকেট শিকার করা দ্বিতীয় খেলোয়াড় হয়েছেন ইংল্যান্ডের অলরাউন্ডার মঈন আলী। গতরাতে শেষ হওয়া দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ব্যাট হাতে ২৫২ রান ও ২৫ উইকেট নেন তিনি। চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ২৫০ বা ততোধিক এবং ২০ বা ততোধিক উইকেট শিকার করে ইতিহাসের দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে স্থান পেলেন মঈন।
ক্রিকেট ইতিহাসে এমন প্রথম এই কীর্তি গড়েছিলেন নিউজিল্যান্ডের স্যার রিচার্ড হ্যাডলি। ১৯৮৩ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ব্যাট হাতে ৩০১ রান ও ২১ উইকেট নিয়েছিলেন হ্যাডলি।
তবে টেস্ট সিরিজে ২৫০ রান ও ২৫ শিকার করা অষ্টম খেলোয়াড় হলেন মঈন। অবশ্য এমন কীর্তি গড়া অন্য সাত খেলোয়াড় অংশ নিয়েছিলেন ৫ বা ৬ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে।
মঈন অংশ নেন চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজে। সর্বশেষ এই তালিকায় নাম উঠেছে ভারতের রবীচন্দ্রন অশ্বিনের। ২০১৬ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ব্যাট হাতে ৩০৬ রান ও ২৮ উইকেট নেন অশ্বিন। এই তালিকায় অন্য ছয় খেলোয়াড় হলেন- ভারতের কপিল দেব, দক্ষিণ আফ্রিকার ট্রেভর গোডার্ড ও অবরি ফকনার, অস্ট্রেলিয়ার জর্জ গিফিন ও রিচি বেনাউদ, ইংল্যান্ডের ইয়ান বোথাম (দু’বার)।
টেস্ট সিরিজে ২৫০ রান বা ততোধিক ও ২৫ বা ততোধিক উইকেট শিকার করা খেলোয়াড়রা :

খেলোয়াড়

ম্যাচরানউইকেটপ্রতিপক্ষসাল

মঈন আলী (ইংল্যান্ড)

২৫২২৫দক্ষিণ আফ্রিকা২০১৭

রবীচন্দ্রন অশ্বিন (ভারত)

৩০৬২৮ইংল্যান্ড২০১৬

রিচি বেনাউদ (অস্ট্রেলিয়া)

৩২৯৩০দক্ষিণ আফ্রিকা১৯৫৭

ইয়ান বোথাম (ইংল্যান্ড)

৩৯৯

৩৪

অস্ট্রেলিয়া

১৯৮১

ইয়ান বোথাম (ইংল্যান্ড)

২৫০

৩১

অস্ট্রেলিয়া

১৯৮৫

অবরি ফকনার (দক্ষিণ আফ্রিকা)

৫৪৫২৯

ইংল্যান্ড

১৯১০

জর্জ গিফিন (অস্ট্রেলিয়া)

৪৭৫

৩৪

ইংল্যান্ড

১৮৯৪

ট্রেভর গোডার্ড (দক্ষিণ আফ্রিকা)

২৯৪২৬

অস্ট্রেলিয়া

১৯৬৬
কপিল দেব (ভারত)২৭৮৩২পাকিস্তান

১৯৭৯


এ বিভাগের আরও সংবাদ