মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:৫৬ পূর্বাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ
শেখ হাসিনাকে জন্মদিনে মোদী পাঠালেন ফুল, চীনের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন পঁচাত্তরের খুনিদের দায়মুক্তি অধ্যাদেশ “ধর্ষিত” মামুনের স্ক্রিনশপ জালিয়াতি ফাঁস : ইলিয়াস সহ সুশীলদের কটাক্ষ জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ : বিশ্ব সভায় বাংলা ভাষার প্রথম আনুষ্ঠানিক প্রতিনিধিত্ব গার্ডিয়ানে প্রকাশিত শেখ হাসিনার নিবন্ধ: ‘আ থার্ড অফ মাই কান্ট্রি ওয়াজ জাস্ট আন্ডারওয়াটার। দ্য ওয়ার্ল্ড মাস্ট অ্যাক্ট অন ক্লাইমেট’ হেফাজতের কর্তৃত্ব যাচ্ছে দেওবন্দের কাফের ঘোষিত জামায়াতের কব্জায় ! অনলাইনে মিলছে টিসিবির পেঁয়াজ আজ টিউলিপ সিদ্দিকের জন্মদিন বাংলাদেশের সঙ্গে রাজনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক বাড়াতে চায় যুক্তরাষ্ট্র প্রধানমন্ত্রীকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর ফোন

গত আট বছরে শিক্ষার্থীর সংখ্যা বেড়েছে আড়াই গুণ : নাহিদ

ইবার্তা ডেস্ক
আপডেট : রবিবার, ১৩ আগস্ট, ২০১৭
শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ

ইবার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকম: শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, ২০০৯ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গঠনের পর গত সাড়ে আট বছরে শিক্ষার্থীর সংখ্যা বেড়েছে প্রায় আড়াই গুণ। শনিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের উন্নয়ন কাজ নিয়ে মাঠ পর্যায়ের প্রকৌশলীদের সাথে মতবিনিময় এবং নবনিয়োগপ্রাপ্ত প্রকৌশলীদের মাঝে মোটর সাইকেল বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ২০১৮ সালের মধ্যে মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কলেজ ,মাদরাসা, কলেজ ও সরকারি বিশ্ববিদ্যালগুলোতে সাড়ে ১৯ হাজার ভবন নির্মাণ সম্পন্ন হবে।

শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের আরো সততা ও দক্ষতার সাথে কাজ সম্পাদন করার নির্দেশনা দিয়ে নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, ‘চলতি অর্থ-বছরের সকল কাজ আগামী মে মাসের মধ্যে সম্পন্ন করতে হবে। কাজের ক্ষেত্রে কোন গাফিলতি করা যাবে না। শিক্ষা অবকাঠামো নির্মাণে কোন দুর্নীতি সহ্য করা হবে না। এক্ষেত্রে আমরা জিরো টলারেন্স নীতি নিয়েছি।’

তিনি বলেন, ২০০৯ সাল থেকে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর (ইইডি) সারাদেশে অবকাঠামো নির্মাণে ব্যাপক কার্যক্রম গ্রহন করে। এ উন্নয়ন কার্যক্রম অব্যাহত আছে এবং নতুন নতুন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। মাধ্যমিক পর্যায়ে প্রথম প্রকল্পের আওতায় ৭ হাজার ৮৫১টি একাডেমিক ভবন নির্মান করা হয়েছে এবং আরো এক হাজার ৫১টি ভবনের নির্মান কাজ চলছে। ৪ হাজার ৬৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে ৩২৩টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে উন্নয়ন প্রকল্প শুরু হবে। ৩ হাজার ২২৩টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের উর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের বিবরণ দিয়ে তিনি বলেন, প্রায় এক হাজার ৫০০ কলেজ ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। আরো এক হাজার ১৭০টি ভবনের নির্মাণ কাজ চলছে। ২০০টি সরকারি কলেজে বিজ্ঞান শিক্ষার সম্প্রসারণে এক হাজার ৮০৫ কোটি টাকার কাজ এ মাসেই শুরু হচ্ছে। ২ হাজার ২৭৪ কোটি টাকা ব্যয়ে কলেজগুলোতে ছাত্রী হোস্টেল নির্মাণ করা হবে।

তিনি বলেন, মাদরাসা শিক্ষার উন্নয়নে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এক হাজার ১৮৩টি ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। আরো ২ হাজার মাদরাসা ভবন নির্মাণ প্রক্রিয়াধীন আছে।
মন্ত্রী বলেন, চলমান উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ১৮৪টি একাডেমিক ও আবাসিক ভবন, শিক্ষার্থী হল ও গবেষণা ভবন নির্মাণ করা হচ্ছে।

শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী দেওয়ান মোহাম্মদ হানজালার সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আলমগীর, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. মহিউদ্দিন খান, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. এস এম ওয়াহিদুজ্জামান, ইইডি’র পরিচালক খালেদা আক্তার এবং আইডিইবি’র প্রচার ও গনসংযোগ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম বক্তৃতা করেন।
পরে মন্ত্রী ইইডি’র নবনিয়োগপ্রাপ্ত ৩০০ প্রকৌশলীর মাঝে আনুষ্ঠানিকভাবে মোটর সাইকেলের চাবি হস্তান্তর করেন।


আরও সংবাদ