বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ০৬:১৯ পূর্বাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ
অনিয়মের বিরুদ্ধে সাবধান করলেন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার আল্টিমেটামের পরেই হেফাজতের তাণ্ডব সারদেশে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেলেন শ্রমিক, ইমাম, ভ্যানচলক : আশ্রয়হীদের জন্য সরকারি ঘর উগ্রতার দায়ে স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেওয়া হল কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্ট বিচ্ছেদের আগেই সম্পত্তি ভাগাভাগির চুক্তি ! ভারতে ১০ হাজার রেমডেসিভির পাঠিয়েছে বাংলাদেশ শফীর মৃত্যুর পর ‘উগ্রপন্থিদের’ হাতে হেফাজত : ইসলামী ঐক্যজোট মমতা শপথ নিলেন টানা তৃতীয়বারের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে আমাদের রাজনৈতিক কালচারকে ধর্মান্ধতার কবলমুক্ত করা প্রয়োজন কোথাও পাওয়া যায়নি ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট : চট্টগ্রামে শনাক্ত যুক্তরাজ্য ও দক্ষিণ আফ্রিকান

অ্যাটর্নি জেনারেলের নির্বাচন করা নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রধান বিচারপতি

ইবার্তা ডেস্ক
আপডেট : বুধবার, ১৬ আগস্ট, ২০১৭
প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা (এস কে সিনহা)

(বিশেষ প্রতিবেদক): আগামী সংসদ নির্বাচনে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের অংশগ্রহণ করা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। অ্যাটর্নি জেনারেলকে উদ্দেশ্য করে প্রধান বিচারপতি বলেন, আমি শুনলাম, আপনি নির্বাচন করছেন তাইতো এলাকায় যান। আপনি তো প্রশাসনের সঙ্গে আপস করে চলছেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা সংক্রান্ত মামলার আপিল শুনানির সময় প্রধান বিচারপতি এ কথা বলেন। এ সময় তিনি ইলিশ মাছ নিয়ে তাঁর আফসোসের কথাও বলেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা মামলার শুনানিতে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আদালতকে বলেন, এখনও কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরা হচ্ছে।
প্রধান বিচারপতি বলেন, কেন আমরা তো আদেশ দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছি।

এসময় অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, আমার বাড়ি পদ্মার পাড়ে। আমি তো এখনও দেখি, কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরা হচ্ছে।

জবাবে প্রধান বিচারপতি বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর না হলে আমাদের কী করার আছে।

প্রধান বিচারপতি দীর্ঘশ্বাস ফেলে বলেন, আমরা তো ইলিশের গন্ধ পাই না!

অ্যাটর্নি জেনারেলকে সিআরপিসি’র কয়েকটি সাংঘর্ষিক ধারার তালিকা দিবেন বলে মন্তব্য করে প্রধান বিচারপতি বলেন, এগুলো ঠিক করা উচিত। আমরা আইনের বাইরে বিচার করবো না। আইনের অধীনেই বিচার করবো।

অ্যাটর্নি জেনারেলের আবেদনের প্রেক্ষিতে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে ছয় বিচারপতির আপিল বেঞ্চ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ ১০ অক্টোবর পর্যন্ত স্থগিত করেন।


আরও সংবাদ