শুক্রবার, ২২ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:৪৬ অপরাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ
ঢাকার ১০৫০ পরিবারকে বাড়ি উপহার প্রধানমন্ত্রীর নিজের নামে পদ্মা সেতুর নামকরণে প্রধানমন্ত্রীর ‘না’ ‘ভ্যাকসিন মৈত্রী’ বনাম অপপ্রচার! প্রাথমিকের সব শিক্ষক ১৩তম গ্রেডে: জানিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয় জীবিত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে যাবে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা চিঠি ঢাবির শতবর্ষ উপলক্ষে আজ আন্তর্জাতিক সম্মেলন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী চাকরিচ্যুত প্রবাসীদের জন্য সরকার বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করেছে : প্রধানমন্ত্রী ক্রিকেট দলকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন ২০৩৫ সাল নাগাদ বাংলাদেশ হবে বিশ্বের ২৫তম বৃহৎ অর্থনীতির দেশ: প্রধানমন্ত্রী টিকা রাখা হচ্ছে তেজগাঁওয়ের ইপিআই স্টোর

“পাকিস্তানের সুপ্রিমকোর্ট প্রধানমন্ত্রীকে ইয়ে করেছেন, সেখানে কিছুই হয়নি”: প্রধান বিচারপতি

ইবার্তা ডেস্ক
আপডেট : রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭
প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা (এস কে সিনহা)

(সুপ্রিম কোর্ট থেকে:) প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেছেন, “পাকিস্তানের সুপ্রিমকোর্ট প্রধানমন্ত্রীকে ইয়ে করেছেন। সেখানে কিছুই হয়নি। আমাদের আরও পরিপক্কতা দরকার।”
আজ রবিবার অধস্তন আদালতের বিচারকদের চাকরিবিধি গেজেট আকারে প্রকাশ সংক্রান্ত মাসদার হোসেন মামলার শুনানিকালে প্রধান বিচারপতি ষোড়শ সংশোধনী প্রসঙ্গে এ কথা বলেন।

প্রধান বিচারপতি বলেন, আমরা বিচার বিভাগ ধৈর্য ধরছি, যথেষ্ট ধরছি।

অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, সবকিছু মিলিয়ে একটি অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। একটি ঝড় উঠেছে।

অ্যাটর্নি জেনারেলকে উদ্দেশ করে প্রধান বিচারপতি বলেন, মিডিয়াতে অনেক কথা বলছেন। কোর্টে এসে অন্য কথা বলেন। আপনাকে নয়, আপনাদের বলছি – আপনি বলেন কবে কি হবে। আপনারা ঝড় তুলছেন, আমরা কোনো মন্তব্য করেছি?

প্রধান বিচারপতি বলেন, এ ঝড় উঠার পরেও সুপ্রিম কোর্ট যথেষ্ট ধৈর্যের পরিচয় দিচ্ছে। বিচার বিভাগ যথেষ্ট ধৈর্য ধরে আছে।

তিনি আরও বলেন, গত ধার্য তারিখে আমরা গেজেট জারির বিষয়ে আলোচনায় বসার কথা বলেছিলাম। এ বিষয়ে কী করেছেন?

অধস্তন আদালতের বিচারকদের চাকরিবিধি গেজেট আকারে প্রকাশের জন্য আবারো সময় চাইলে মাহবুবে আলমকে উদ্দেশ করে প্রধান বিচারপতি বলেন, আপনার আলোচনার কথা হয়েছিল, কার সঙ্গে কে কে থাকবে।

জবাবে মাহবুবে আলম বলেন, ল’ মিনিস্টার।

তখন বিচারপতি আবদুল ওয়াহাব মিয়া বলেন, অল জাজেজ অব অ্যাপিলেট ডিবিশন, তারপর আলোচনা পর্যন্ত করলেন না।

এরপর রাষ্ট্রপক্ষের করা সময় আবেদনের প্রেক্ষিতে অধস্তন আদালতের বিচারকদের চাকরিবিধি গেজেট আকারে প্রকাশের জন্য সরকারকে ৮ অক্টোবর পর্যন্ত সময় দেয় আপিল বিভাগ।


আরও সংবাদ