শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ০৭:০৭ পূর্বাহ্ন

বন্যার মধ্যেও জয়পুরহাটে সবজি উৎপাদন হয়েছে ১১ লাখ ৩৫ হাজার মে. টন

ইবার্তা ডেস্ক
আপডেট : সোমবার, ২১ আগস্ট, ২০১৭

ইবার্তা ডেস্ক: ভারী বর্ষণ ও বন্যার মধ্যেও জয়পুরহাট জেলায় ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে সবজি ফসলের উৎপাদন হয়েছে ১১ লাখ ৩৪ হাজার ৯৪৯ মেট্রিক টন। যা জেলার চাহিদা মিটিয়ে দেশের অন্যান্য জেলায় সরবরাহ করা সম্ভব হয়েছে। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এ তথ্য জানিয়েছে। খবর বাসস।

জয়পুরহাটের উর্বর মাটিতে সব ধরনের সবজির উৎপাদন ভাল হয়। স্থানীয় কৃষি বিভাগ সবজি চাষে ব্যাপক উদ্যোগ গ্রহণসহ ব্যাপক হারে সবজি উৎপাদনে কৃষক পর্যায়ে উন্নত মানের বীজ সরবরাহ এবং প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে। ফলে জেলায় ২০১৬-২০১৭ অর্থ বছরে লক্ষ্যমাত্রার অতিরিক্ত সবজির উৎপাদন হয়েছে।

চাষ হওয়া সবজির মধ্যে ৫৯৫ হেক্টর জমিতে বেগুন উৎপাদন হয়েছে ১৭ হাজার ৮৭১ মে. টন,
৩৯৫ হেক্টর জমিতে টমেটো উৎপাদন হয়েছে ১১ হাজার ৪৫৫ মে. টন,
৪৯০ হেক্টর জমিতে সীম উৎপাদন হয়েছে ৬ হাজার ৩৭০ মে. টন,
৫৫০ হেক্টর জমিতে ফুলকপি উৎপাদন হয়েছে ১৩ হাজার ২০০ মে. টন,
৫০০ হেক্টর জমিতে বাঁধাকপি উৎপাদন হয়েছে ২৭ হাজার ৫০০ মে.টন,
৪৭৫ হেক্টর জমিতে মূলা উৎপাদন হয়েছে ১৯ হাজার ৯৫০ মে.টন,
৩২০ হেক্টর জমিতে লাউ উৎপাদন হয়েছে ৮ হাজার মে.টন,
৪০ হেক্টর জমিতে চাল কুমড়া উৎপাদন ৮শ’ মে.টন,
৩৮০ হেক্টর জমিতে মিষ্টি কুমড়া উৎপাদন ৪ হাজার ৯৪০ মে.টন,
৪৬৫ হেক্টর জমিতে পটল উৎপাদন হয়েছে ১১ হাজার ৬২৫ মে.টন,
২৫ হেক্টর জমিতে বরবটি উৎপাদন হয়েছে ২৭৫ মে.টন,
২১০ হেক্টর জমিতে শসা উৎপাদন হয়েছে ২ হাজার ৫২০ মে.টন,
৭৫ হেক্টর জমিতে ঝিঙ্গা উৎপাদন হয়েছে ৬৭৫ মে.টন,
১৫৫ হেক্টর জমিতে ডাটা উৎপাদন হয়েছে ৪ হাজার ৩০ হেক্টর,
৪২ হাজার ৫৩০ হেক্টর জমিতে গোল আলু উৎপাদন ৯ লাখ ৬৯ হাজার ৪৮৮ মে. টন
এবং
১ হাজার ২৫০ হেক্টর জমিতে লতিরাজ কচু উৎপাদন হয়েছে ৩৬ হাজার ২৫০ মেট্রিক টন।

জয়পুরহাট জেলায় ৪২ হাজার ৫৩০ হেক্টর জমিতে এবার আলুর চাষ ছাড়া ৫ হাজার হেক্টর লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে সবজির চাষ হয়েছে ৫ হাজার ৯২৫ হেক্টর জমিতে। ফলে জেলায় উৎপাদিত অতিরিক্ত সবজি বিভিন্ন জেলায় সরবরাহ করা হয়ে থাকে।

কৃষি বিভাগের সূত্রে জানা গেছে, গত কয়েক দিনের ভারি বৃষ্টিপাত ও উজানের ঢলে বর্তমানে জমিতে থাকা প্রায় ৬শ’ হেক্টর জমির সবজি ফসল নষ্ট হয়েছে। এ ক্ষতি পূরণের জন্য জেলার পাঁচ উপজেলাতেই এক লাখ টাকার বিভিন্ন সবজির বীজ বিতরণ করা হবে।


আরও সংবাদ