1. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  2. [email protected] : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
  3. [email protected] : নিউজ এডিটর : নিউজ এডিটর
তারেকের বিরুদ্ধে বিএনপি নেতাদের ক্ষোভ প্রকাশ্যে আসছে - ebarta24.com
  1. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  2. [email protected] : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
  3. [email protected] : নিউজ এডিটর : নিউজ এডিটর
তারেকের বিরুদ্ধে বিএনপি নেতাদের ক্ষোভ প্রকাশ্যে আসছে - ebarta24.com
বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৩৭ অপরাহ্ন

তারেকের বিরুদ্ধে বিএনপি নেতাদের ক্ষোভ প্রকাশ্যে আসছে

সম্পাদনা:
  • সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ৯ আগস্ট, ২০২১

অতীতে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে তারা যতটা কর্মচঞ্চল ছিল বর্তমানে তেমনটিও দেখা যাচ্ছে না। এখন দলের নিয়ন্ত্রণ ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমানের কাছে থাকায় অনেকটাই নিষ্প্রাণ হয়ে পড়েছে দলটি। তার নানা সিদ্ধান্ত নিয়ে দলে রয়েছে আলোচনা-সমালোচনা। বলা হচ্ছে, দলে ত্যাগী নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন না করার ফলে বিএনপির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটিসহ কেন্দ্রীয় কমিটির বেশ কিছু পদ শূন্য। পাশাপাশি অঙ্গ সহযোগী সংগঠন এবং বিএনপিপন্থী পেশাজীবী সংগঠনেরও করুণ দশা। সব মিলিয়ে এখন অভিযোগের তীর তারেক রহমানের দিকে।

বিএনপির গত নির্বাহী কমিটির সহ-দফতর সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করলেও বর্তমান কমিটিতে পদ হারিয়েছেন এমন একজন নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, দলে তারেক রহমানের একক নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করতে গিয়ে মূলত অভিজ্ঞ নেতৃত্বকে কোণঠাসা করা হচ্ছে, যা বিএনপির জন্য মোটেও শুভ নয়। ২০১৮ সালের নির্বাচনে চরম ব্যর্থতার পর দল পুনর্গঠনের চেষ্টা চলছে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমানের নির্দেশনায়। তার নির্দেশনা নিয়ে দলের অভ্যন্তরে রয়েছে নানা অসন্তোষ। দলের মহাসচিব ও সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিবের মধ্যে যে রাজনৈতিক দূরত্ব তার জন্যও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসনই দায়ী। ফলে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দলের মহাসচিব হলেও কার্যত ক্ষমতা শূন্যের কোটায়। তার ক্ষমতা নিয়ে দলের সর্বস্তরের নেতাদের মধ্যেও সন্দেহ রয়েছে।

বিএনপির চিকিৎসক সংগঠন ড্যাবের নেতা ডা. মাজহারুল ইসলাম দোলন বলেন, আমি পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, যারা দুঃসময়ে কাজ করে তাদের মূল্যায়ন করা হয় না, এ কারণে আজকে মাঠের এ অবস্থা। আমরা নামাজ পড়ি বেহেশতে যাওয়ার জন্য। দলের নেতাকর্মীরা কাজ করি পরবর্তীতে মূল্যায়ন করা হবে ভেবে। কিন্তু দেখা যাচ্ছে, দলের দুঃসময়ে যারা কাজ করি সুসময়ে আমাদের মূল্যায়ন করা হয় না। এজন্য মাঠে লোক পাওয়া যায় না। দলের ত্যাগী নেতাদের সঠিকভাবে মূল্যায়ন হচ্ছে না। এ নিয়ে নেতার (তারেক রহমান) সঙ্গে বহু ঝগড়া করেছি, আর করতে চাই না। অবমূল্যায়নের কারণে মাঠে এখন লোক পাওয়া যায় না। এর দায় নেতাকেই নিতে হবে।

বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির এক সদস্য বলেন, অভিজ্ঞ ও প্রবীণ নেতৃত্বের প্রতি বর্তমান ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসনের আস্থা খুবই কম। সে কারণেই তিনি এই শূন্য পদগুলো পূরণ করতে চাচ্ছেন না। বিএনপির ১৯ সদস্যের স্থায়ী কমিটির পাঁচটি পদ শূন্য। দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান চাইলে স্থায়ী কমিটিতে শূন্যপদ পূরণ করতে পারেন। এছাড়া দলে আরও বেশ কিছু শূন্য পদ রয়েছে। সেগুলোও পূরণ করতে পারেন। কিন্তু কেন করছেন না, তা কারও কাছে পরিষ্কার নয়।

তিনি বলেন, নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন না করার ফলে দলের স্তরে স্তরে ঘাটতি তৈরি হয়। ত্যাগী নেতাদের যখন মূল্যায়ন করা হয় না, তখন নতুন করে ত্যাগী নেতা তৈরি হয় না। তাদের দেখে নতুন করে কেউ ত্যাগী হতে চায় না। এতে সংগঠনগুলো দুর্বল হয়, ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ফলে আন্দোলন বা মুভমেন্ট করতে গেলে সেটা আর পারে না। রাজনীতি হলো- ফুটবল ক্রিকেটের মতো, অনুশীলন করতে হয়।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি প্রতিষ্ঠার পর থেকে এমন ক্রান্তিকাল আর আসেনি দলটিতে। সরকারবিরোধী রাজনীতিতে যেমন ব্যর্থ, তেমনি জোটের রাজনীতিতে শরিক দলগুলোর রীতিমতো সমালোচনার পাত্র বিএনপি। আর দলের অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতেও নেই কোনো চমক। আছে শুধু বিভক্তি আর কোন্দল। সব মিলিয়ে একটি ব্যর্থ রাজনৈতিক দলে পরিনিত হচ্ছে বিএনপি।





সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ





ebarta24.com © All rights reserved. 2021