1. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  2. [email protected] : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
  3. [email protected] : নিউজ এডিটর : নিউজ এডিটর
নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন কামাল, শেখ হাসিনাবিরোধী প্রচারণার দায়িত্বে বার্গম্যান - ebarta24.com
  1. [email protected] : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  2. [email protected] : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
  3. [email protected] : নিউজ এডিটর : নিউজ এডিটর
নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন কামাল, শেখ হাসিনাবিরোধী প্রচারণার দায়িত্বে বার্গম্যান - ebarta24.com
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:১৮ পূর্বাহ্ন

নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন কামাল, শেখ হাসিনাবিরোধী প্রচারণার দায়িত্বে বার্গম্যান

ইবার্তা সম্পাদনা পর্ষদ
  • সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ৩০ আগস্ট, ২০২১

একদিকে আরো বড় পরিসরে পরবর্তী নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন ড. কামাল হোসেন, অন্যদিকে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশ সরকারকে কোণঠাসা করতে নিয়মিত প্রোপাগান্ডা ছড়াচ্ছেন তার জামাতা ডেভিড বার্গম্যান। মূলত ড. কামাল হোসেনের নির্দেশনায় দীর্ঘদিন ধরে সরকার ও প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে মিথ্যা তথ্য ছড়ানোর কাজ করছেন এই বৃটিশ নাগরিক। শুধু তাই নয়, নিজের রাজনৈতিক সম্পর্ক গোপন রাখতে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছেন সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী পরিচয়। ফলে বিভ্রান্ত হচ্ছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এবং গণমাধ্যমগুলো।

২৭ আগস্ট (শুক্রবার) দৈনিক সমকালে প্রকাশিত এক সাক্ষাৎকারে বার্গম্যানের শ্বশুর ও ধনাঢ্য রাজনীতিবিদ ড. কামাল জানান, বড় ধরনের একটি সরকারবিরোধী জোট গড়ে পরবর্তী নির্বাচনে লড়ার জন্য মাঠ গোছাচ্ছেন তিনি। অবশ্য এর আগেও, ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াতকে নিয়ে গঠিত সরকারবিরোধী ঐক্যজোটের সমন্বয়ক ছিলেন ড. কামাল হোসেন। এখনো তিনি সেই দায়িত্ব পালন করছেন। তবে গত নির্বাচনের পরাজয়ের পর, এবার আরো বড় জোট গঠনের জন্য কাজ করছেন এই প্রভাবশালী আইনজীবী। এমনকি যেকোনো মূল্যে আগামী নির্বাচনে জেতার জন্য সরকার ও প্রধানমন্ত্রীর নামে মিথ্যা প্রচারণা ছড়াতেও দ্বিধা করছেন না তারা।

এদিকে ড. কামালের নির্দেশে, বিএনপি-জামায়াতের লবিস্ট হিসেবে এদেশের সরকার, প্রশাসন, এমনকি প্রগতিশীল দলগুলোকে নিয়েও রাজনৈতিক প্রোপাগান্ডা ছড়াচ্ছে তার জামাই বার্গম্যান। এমনকি বিদেশে বসে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস বিকৃত করছে সে। শুধু তাই নয়, মুক্তিযুদ্ধকালে গণহত্যা ও ধর্ষণের দায়ে দণ্ডিতদের রক্ষা করতে লন্ডনে বাংলাদেশ-হাইকমিশনের সামনে বিএনপি-জামায়াত কর্মীদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বিক্ষোভেও দেখা গেছে তাকে। আবার একইসঙ্গে আন্তর্জাতিক পত্রিকাগুলোতে বাংলাদেশকে নেতিবাচকভাবে তুলে ধরতে বিভিন্ন পক্ষপাতদুষ্ট মতামত দেওয়ার কাজও চালিয়ে যাচ্ছে সে।

তার উদ্দেশ্য একটাই, দেশের উন্নয়ন ও কল্যাণের দিক থেকে মানুষের দৃষ্টি ফিরিয়ে নেওয়া এবং যেকোনো মূল্যে সরকার ও বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার ইমেজ নষ্ট করা। একারণে, মানুষকে বোকা বানিয়ে নিজেদের রাজনৈতিক এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য নিজেকে ‘জার্নালিস্ট’ হিসেবে পরিচয় দিয়ে যাচ্ছে বিএনপি-জামায়াতের ‘পেইড অ্যাকটিভিস্ট’ ডেভিড বার্গম্যান। এরপর সুকৌশলে দেশে ও বিদেশে বাংলাদেশবিরোধী প্রচারণা চালিয়ে চালাচ্ছে। যাতে, আগামী নির্বাচনে তার রাজনীতিবিদ শ্বশুর বিশেষ সুবিধা লাভ করতে পারে।

উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালে স্বাধীনতার পর আইনজীবী ড. কামালকে মন্ত্রীর পদ দিয়েছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। কিন্তু ১৯৭৫ সালে একদল বর্বর ঘাতকের হাতে বঙ্গবন্ধু সপরিবারে প্রাণ হারানোর পর রহস্যজনকভাবে নীরব ভূমিকা পালন করেন তিনি। এরপর বঙ্গবন্ধুকন্যা দেশে ফিরে যখন দেশ ও দলকে সুসংগঠিত করার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করছিলেন, ঠিক তখনই দলে ভাঙন ধরানোর চেষ্টা করেন ড. কামাল। এরপর নব্বইয়ের দশকের শুরুর দিকে গণফোরাম নামে আলাদা দল গঠন করেন। কিন্তু এরপর আর কখনোই কোনো নির্বাচনে জয় লাভ করতে পারেননি তিনি। পরবর্তীতে, ১৯৭১-এর যুদ্ধাপরাধীদের দল জামায়াত এবং ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট শেখ হাসিনাকে গ্রেনেড ছুড়ে হত্যাচেষ্টার মাস্টারমাইন্ড তারেক রহমানের বিএনপির সঙ্গে জোট করেন। কিন্তু ২০১৮ সালের নির্বাচনেও পরাজিত হন তিনি। এরপর থেকেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, তার পরিবার এবং বাংলাদেশ সরকারের নামে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে কুৎসা ছড়ানোর এজেন্ডা নেন তিনি। আর এই এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য জার্নালিজমের ছদ্মবেশে বাংলাদেশবিরোধী অ্যাকটিভিজম চালিয়ে যাচ্ছে তার বেকার জামাই বার্গম্যান। চূড়ান্ত লক্ষ্য, ন্যায়-অন্যায় যেকোনো মূল্যেই সরকারের দখল নেওয়া।





সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ





ebarta24.com © All rights reserved. 2021