1. alamin@ebarta24.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
  2. online@ebarta24.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  3. reporter@ebarta24.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
  4. news@ebarta24.com : নিউজ এডিটর : নিউজ এডিটর
দুই দিনের অভিযানে পাঁচশতাধিক অবৈধ স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান বন্ধ - ebarta24.com
  1. alamin@ebarta24.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
  2. online@ebarta24.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  3. reporter@ebarta24.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
  4. news@ebarta24.com : নিউজ এডিটর : নিউজ এডিটর
দুই দিনের অভিযানে পাঁচশতাধিক অবৈধ স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান বন্ধ - ebarta24.com
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০১:১০ অপরাহ্ন

দুই দিনের অভিযানে পাঁচশতাধিক অবৈধ স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান বন্ধ

স্বাস্থ্য ডেস্ক
  • সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ৩১ আগস্ট, ২০২২

অবৈধ স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে চলছে শুদ্ধিকরণ অভিযান। ২৯ আগষ্ট থেকে শুরু হওয়া এই অভিযানে এ পর্যন্ত বন্ধ করা হয়েছে পাঁচশতাধিক প্রতিষ্ঠান। আর জরিমানা হিসেবে আদায় করা হয়েছে ৯ লাখের বেশি টাকা। এদিকে অনিবন্ধিত প্রতিষ্ঠানে চিকিৎসক কাজ করলে তাদের বিরুদ্ধেও আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, সবচেয়ে বেশি অবৈধ স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হয়েছে ঢাকা মহানগর সহ ঢাকা বিভাগে। এ সংখ্যাটি ১৬৫। এর মধ্যে ঢাকা মহানগরে ১৫ টি আর ঢাকা বিভাগে ১৪৫টি। এরপরেই রয়েছে খুলনা বিভাগ। সেখানে ১৪৯ টি সেবা প্রতিষ্ঠানকে বন্ধ করা হয়েছে।‌ অভিযানে চট্টগ্রাম বিভাগে ৭৬টি, ময়মনসিংহ বিভাগে ৫৪ টি, রাজশাহী বিভাগের ৫৩টি, রংপুর বিভাগে ১৯ টি, বরিশালে ১২টি এবং সিলেট বিভাগে একটি অবৈধ স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হয়েছে। এছাড়া এই অভিযানে ৯ লাখ ১৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

বুধবার (৩১ আগস্ট) চলমান এই শুদ্ধিকরণ অভিযানের তৃতীয় দিন।‌ ৯৬ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়ে রবিবারের ঘোষণার মধ্য দিয়ে সোমবার থেকে রাজধানীসহ সারা দেশে অবৈধ সেবা প্রতিষ্ঠান বন্ধে দ্বিতীয় দফায় শুদ্ধিকরণ অভিযান শুরু হয়। আগামীকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত এই অভিযান চলবে।

এর আগে গত ২৬ মে সারাদেশে অবৈধ সেবা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে মোট এক হাজার ৬৪১টি প্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হয়। অভিযানে সেগুলোকে জরিমানা করে ২৫ কোটি ১৮ লাখ ৫২ হাজার ৮৬৭ টাকা রাজস্ব আয় হয়েছে। নতুন লাইসেন্সের জন্য পরিদর্শনের অপেক্ষায় আছে এক হাজার ৯৪৬টি চিকিৎসাসেবা প্রতিষ্ঠান। লাইসেন্স নবায়ণের জন্য পরিদর্শনের অপেক্ষায় আছে দুই হাজার ৮৮৭টি প্রতিষ্ঠান। এক হাজার ৪৮৯টি প্রতিষ্ঠান নতুন লাইসেন্স এবং দুই হাজার ৯৩০টি প্রতিষ্ঠান লাইসেন্স নবায়ণ করেছে। লাইসেন্সের জন্য পরিদর্শন শেষ হয়েছে ৩৭৯টি প্রতিষ্ঠান। লাইসেন্স নবায়ণের জন্য পরিদর্শন শেষ হয়েছে এক হাজার ৭৬টি এবং নতুন লাইসেন্সের জন্য আবেদন করে অপেক্ষমান আছে দুই হাজার প্রতিষ্ঠান।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ
ebarta24.com © All rights reserved. 2021