বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ০৬:০৫ পূর্বাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ
অনিয়মের বিরুদ্ধে সাবধান করলেন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার আল্টিমেটামের পরেই হেফাজতের তাণ্ডব সারদেশে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেলেন শ্রমিক, ইমাম, ভ্যানচলক : আশ্রয়হীদের জন্য সরকারি ঘর উগ্রতার দায়ে স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেওয়া হল কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্ট বিচ্ছেদের আগেই সম্পত্তি ভাগাভাগির চুক্তি ! ভারতে ১০ হাজার রেমডেসিভির পাঠিয়েছে বাংলাদেশ শফীর মৃত্যুর পর ‘উগ্রপন্থিদের’ হাতে হেফাজত : ইসলামী ঐক্যজোট মমতা শপথ নিলেন টানা তৃতীয়বারের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে আমাদের রাজনৈতিক কালচারকে ধর্মান্ধতার কবলমুক্ত করা প্রয়োজন কোথাও পাওয়া যায়নি ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট : চট্টগ্রামে শনাক্ত যুক্তরাজ্য ও দক্ষিণ আফ্রিকান

বিএনপির ত্রাণ বিতরণ নিছক মায়াকান্না : ওবায়দুল কাদের

ইবার্তা ডেস্ক
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, রোহিঙ্গাদের জন্য বিএনপির ত্রাণ বিতরণ নিছক মায়াকান্না ছাড়া কিছু নয়। তিনি বলেন, বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের জন্য সরকার সম্ভাব্য সব কিছু করছে। তাদেরকে না খেয়ে থাকতে হবে না।
বুধবার সকালে কক্সবাজারের উখিয়ায় কুতুপালং শরণার্থী ক্যাম্প পরিদর্শন ও ত্রাণ বিতরণকালে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকার সহযোগিতার হাত প্রসারিত করে অত্যন্ত মানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছে।

তিনি বলেন, মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গাদের নির্বিচারে হত্যা করা হচ্ছে, তাদের সাথে বর্বর আচরণ করা হচ্ছে। প্রাণ বাঁচাতে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশ পালিয়ে আসছে। আমরা তাদের ঠেলে দিতে পারি না।
আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে গতকাল মঙ্গলবার ১৫ হাজার রোহিঙ্গার মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক একে এম এনামুল হক শামীম, কেন্দ্রীয় কমিটির উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তাফা, সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, সহ-সভাপতি রেজাউল করিম, সাংগঠনিক সম্পাদক নাজনীন সরওয়ার কাবেরী প্রমুখ।

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে পালিয়ে আসা হিন্দু সম্প্রদায়ের ৫২৩ জনকে দেখতে যান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।
বুধবার সকাল ১১টায় কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং পশ্চিম হিন্দু পাড়ায় গিয়ে মন্ত্রী আশ্রয় নেয়া এসব লোকজনের খোঁজখবর নেন। মন্ত্রী তাদের ওপর নির্যাতনের কথা মনোযোগ সহকারে শোনেন। মন্ত্রী আশ্রয় নেয়া হিন্দু সম্প্রদায়কে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে দেয়া ৫০ হাজার টাকা প্রদান করেন।


আরও সংবাদ