বৃহস্পতিবার, ০৬ অগাস্ট ২০২০, ০৯:০৩ অপরাহ্ন

ট্রাম্পের কাছ থেকে কোন সহায়তা প্রত্যাশা করেন না শেখ হাসিনা

ইবার্তা ডেস্ক
আপডেট : মঙ্গলবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৭
Statement by Her Excellency Sheikh Hasina, Prime Minister of the People’s Republic of Bangladesh

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তিনি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছ থেকে মিয়ানমার থেকে আগত রোহিঙ্গা মুসলমানদের জন্য কোন সাহায্য আশা করেন না। গতকাল সোমবার ট্রাম্পের সাথে সাক্ষাতে শরণার্থীদের ব্যাপারে তাঁর অনুভূতির কথা জানিয়েছেন।

মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে গত মাসে রোহিঙ্গাদের উপর মায়ানমারের সামরিক বাহিনী হামলা চালালে চার লক্ষাধিক রোহিঙ্গা মুসলমানরা বাংলাদেশ আশ্রয় গ্রহণ করে। জাতিসংঘ এ হামলাকে “এথনিক ক্লিনজিং” হিসেবে অভিহিত করে। মায়ানমার সরকার চারশ মানুষের মৃত্যুর কথা স্বীকার করেছে।

শেখ হাসিনা আগামী বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে বিশ্বের নেতাদের উদ্দেশ্যে ভাষণ দিবেন। প্রদত্ত ভাষণ সম্পর্কে শেখ হাসিনা বলেন, উদ্বাস্তুদের ব্যাপারে ট্রামের অবস্থান সুস্পষ্ট, তাই রোহিঙ্গা মুসলমান শরণার্থীদের জন্য তার কাছ থেকে কোন সহায়তা প্রত্যাশা করেন নি।

আমেরিকা কোনো শরণার্থী আশ্রয় না দেয়ারে ঘোষণা করেছে বলে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমি তাদের কাছ থেকে বিশেষত মার্কিন রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে কি আশা করতে পারি! তারা ইতোমধ্যেই তাদের অবস্থানের কথা ঘোষণা করেছেন। তাই আমি কেন জিজ্ঞেস করবো?”

শেখ হাসিনা বলেন, “বাংলাদেশ ধনী দেশ নয় কিন্তু আমরা যদি ১৬ কোটি মানুষের অন্ন সংস্থান করতে পারি তাহলে আরও পাঁচ বা সাত লক্ষ লোকের খাদ্যের ব্যবস্থাও করতে পারবো।”

উল্লেখ্য, সিরিয়ার সমস্যা থেকে জঙ্গিবাদের ঝুঁকির কথা উল্লেখ করে ট্রাম্প কোনো শরণার্থীকে আশ্রয় না দেয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন।
এদিকে শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে আন্তর্জাতিকভাবে রাজনৈতিক চাপ সৃষ্টির আহবান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, মায়ানমারের নেত্রী অং সান সু কি’র স্বীকার করা উচিত যে এ উদ্বাস্তুরা তার দেশের এবং মায়ানমার এই উদ্বাস্তুদেরও দেশ। তারা অনেক দুর্ভোগ পোহাচ্ছে।


আরও সংবাদ