বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ০৬:৫৮ পূর্বাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ
অনিয়মের বিরুদ্ধে সাবধান করলেন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার আল্টিমেটামের পরেই হেফাজতের তাণ্ডব সারদেশে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেলেন শ্রমিক, ইমাম, ভ্যানচলক : আশ্রয়হীদের জন্য সরকারি ঘর উগ্রতার দায়ে স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেওয়া হল কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্ট বিচ্ছেদের আগেই সম্পত্তি ভাগাভাগির চুক্তি ! ভারতে ১০ হাজার রেমডেসিভির পাঠিয়েছে বাংলাদেশ শফীর মৃত্যুর পর ‘উগ্রপন্থিদের’ হাতে হেফাজত : ইসলামী ঐক্যজোট মমতা শপথ নিলেন টানা তৃতীয়বারের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে আমাদের রাজনৈতিক কালচারকে ধর্মান্ধতার কবলমুক্ত করা প্রয়োজন কোথাও পাওয়া যায়নি ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট : চট্টগ্রামে শনাক্ত যুক্তরাজ্য ও দক্ষিণ আফ্রিকান

আইসিসি প্রতিনিধিদলের অস্ট্রেলিয়া সফর

ইবার্তা ডেস্ক
আপডেট : সোমবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

এনার্জিসহ অবকাঠামোখাতে অস্ট্রেলিয়ার বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছের আইসিসি বাংলাদেশ এর সভাপতি মাহবুবুর রহমান। তিনি বলেন, বাংলাদেশ সরকার ১০০টি রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করতে যাচ্ছে এবং বেসরকারিখাতেরও রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল প্রতিষ্ঠার অনুমতি দিয়েছে। একই সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দলকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান তিনি।

গতকাল আইসিসি বাংলাদেশের সভাপতি এবং ইস্টল্যান্ড ইন্সুরেন্স কোম্পানির চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমানের নেতৃত্বে আইসিসি বাংলাদেশ এর একটি প্রতিনিধি দল সিডনিতে অস্ট্রেলিয়ার ট্রেড অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট কমিশনের (অস্ট্রেড) কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক সভায় মিলিত হন। সভায় দু’দেশের মধ্যে বেসরকারিখাতের বাণিজ্য এবং বিনিয়োগ বাড়ানোর ওপর আলোচনা হয়। তৈরী পোশাক, ওষুধ শিল্প এবং চামড়া পণ্য রপ্তানিসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সভায় আলোচনা হয়।

মাহবুবুর রহমান বলেন, দক্ষিণ কোরিয়া ইতোমধ্যেই একটি রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করেছে। এছাড়া চায়না, ইন্ডিয়া ও জাপান কর্তৃক স্বতন্ত্র রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল প্রতিষ্ঠা হতে যাচ্ছে। সুতরাং অস্ট্রেলিয়াও বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রদত্ত সুবিধা নিয়ে রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করতে পারে। এছাড়াও এনার্জিসহ অবকাঠামোখাতে ব্যাপক বিনিয়োগের সম্ভাবনা রয়েছে। অস্ট্রেলিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার কাজী ইমতিয়াজ হোসেন বালেন, বাংলাদেশে সরাসরি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সরকারের নীতিমালা সম্পর্কে অস্ট্রেড কর্মকর্তাদের অবহিত করেন। তিনি উল্লেখ করেন বাংলাদেশে বিনিয়োগ-বান্ধব নীতিমালা রয়েছে ও শতভাগ মালিকানা এবং বিদেশি বিনিয়োগকারীদের লভ্যাংশ নিজদেশে পাঠানোর সুযোগ রয়েছে।

তিনি বলেন, যে বাংলাদেশে বিনিয়োগের সুযোগ-সুবিধা সম্পর্কে জানতে অস্ট্রেলিয়ান বাণিজ্য প্রতিনিধিদল বাংলাদেশ সফর করতে চাইলে বাংলাদেশ হাইকমিশন স্বাগত জানাবে। অস্ট্রেড এশিয়ার জেনারেল ম্যানেজার মিস লিউ বিং অস্ট্রেডে সিডনি কার্যালয়ে আসার জন্য বাংলাদেশ হাইকমিমনার কাজী ইমতিয়াজ হোসেন এবং আইসিসি বাংলাদেশ সভাপতি মাহবুবুর রহমানকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। আইসিসি বাংলাদেশ এর প্রতিনিধি দল এর সদস্যরা তৈরী পোশাক শিল্পের জন্য অস্ট্রেলিয়া থেকে আরও বেশি তুলা আমদানি করার ব্যাপরে আগ্রহপ্রকাশ করেন এবং অস্ট্রেলিয়াতে তুলা চাষের ওপর বিনিয়োগের ব্যাপারে আগ্রহ দেখান যা বাংলাদেশে রপ্তানি করা হবে।


আরও সংবাদ