শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ১২:১৯ অপরাহ্ন

রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতেই হবে মিয়ানমারকে: সুষমা

ইবার্তা ডেস্ক
আপডেট : সোমবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৭

রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতেই হবে মিয়ানমারকে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে এ কথা জানিয়েছেন সফররত ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ।

রোববার সন্ধ্যায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতের পর সুষমা স্বরাজকে উদ্ধৃত করে সাংবাদিকদের এ কথা জানান প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম। তিনি জানান, সুষমা স্বরাজ প্রধানমন্ত্রীকে বলেছেন, মিয়ানমারকে অবশ্যই তাদের নাগরিকদের ফেরত নিতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব জানান, সুষমা স্বরাজ তার ভাষায় বিপুলসংখ্যক শরণার্থীকে বাংলাদেশের বোঝা হিসেবেও আখ্যায়িত করেন এবং বলেন, বাংলাদেশ কতদিন এই ভার বহন করবে? এর স্থায়ী সমাধান অবশ্যই করতে হবে।

এ সমস্যার স্থায়ী সমাধানের জন্য রাখাইনের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের ভূমিকার ওপরও জোর দেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সৌজন্য সাক্ষাতের সময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী, প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী, ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী এবং প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী, ভারতের পররাষ্ট্র সচিব সুব্রামনিয়ম জয়শংকর এবং ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা উপস্থিত ছিলেন।
মুক্তিযুদ্ধের সময় মুক্তিবাহিনী ও ভারতীয় বাহিনীর ব্যবহৃত কিছু সমরাস্ত্র শুভেচ্ছা স্মারক হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হস্তান্তর করেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী—বাসস

সৌজন্য সাক্ষাতের শুরুতে মুক্তিযুদ্ধের সময় মুক্তিবাহিনী ও ভারতীয় বাহিনীর ব্যবহৃত কিছু সমরাস্ত্র শুভেচ্ছা স্মারক হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হস্তান্তর করেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

চতুর্থ পরামর্শক কমিশনের বৈঠকে যোগ দিতে সুষমা স্বরাজ দুপুর ১টা ৫৫ মিনিটে ঢাকায় অবতরণ করেন। এরপর হোটেল সোনারগাঁওয়ে বাংলাদেশ-ভারত যৌথ পরামর্শক কমিশনের বৈঠক শুরু হয় বিকেল সাড়ে ৪টায়; সোয়া এক ঘণ্টার বৈঠক শেষে পৌনে ৬টায় যৌথ সংবাদ সম্মেলনস্থলে আসেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী ও ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ।

এরপর গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন সুষমা স্বরাজ। পরে তিনি সোনারগাঁও হোটেলে তার সৌজন্যে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলীর দেয়া নৈশভোজে যোগ দেবেন। সুষমা স্বরাজের বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠকের কথা রয়েছে।

সোমবার বিকেলে দিল্লি ফিরে যাওয়ার কথা রয়েছে সুষমা স্বরাজের। এর আগে সকালে বারিধারায় ভারতীয় হাইকমিশনের নতুন চ্যান্সেরি ভবনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন তিনি। এ ছাড়া ভারতের অর্থায়নে বাস্তবায়িত ১৫টি উন্নয়ন প্রকল্পেরও উদ্বোধন করবেন সুষমা স্বরাজ।


আরও সংবাদ