1. alamin@ebarta24.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
  2. online@ebarta24.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  3. reporter@ebarta24.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
  4. news@ebarta24.com : নিউজ এডিটর : নিউজ এডিটর
আরও দুই পোশাক কারখানা পেল সবুজ কারখানার স্বীকৃতি - ebarta24.com
  1. alamin@ebarta24.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
  2. online@ebarta24.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  3. reporter@ebarta24.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
  4. news@ebarta24.com : নিউজ এডিটর : নিউজ এডিটর
আরও দুই পোশাক কারখানা পেল সবুজ কারখানার স্বীকৃতি - ebarta24.com
বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৯:১১ পূর্বাহ্ন

আরও দুই পোশাক কারখানা পেল সবুজ কারখানার স্বীকৃতি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ৩ অক্টোবর, ২০২২

দেশের রপ্তানিমুখী তৈরি পোশাক শিল্পের আরও দুই কারখানা সবুজ কারখানা হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে ইউনাইটেড স্টেটস গ্রিন বিল্ডিং কাউন্সিল (ইউএসজিবিসি)। এর মধ্যে গাজীপুরের আমান টেক্সটাইল লিমিটেড পেয়েছে প্লাটিনাম রেটিং এবং রাজধানীর মধ্যে আয়েশা ফ্যাশন লিমিটেড গোল্ড রেটিং পেয়েছে।

সোমবার (৩ অক্টোবর) সংবাদমাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছে পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারকদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রফতানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ)।

এ বিষয়ে বিজিএমইএর পরিচালক মহিউদ্দিন রুবেল জানান, বাংলাদেশের পোশাকশিল্পের আরও দুই কারখানা পরিবেশবান্ধব স্বীকৃতি পেয়েছে। পরিবেশ সনদ পাওয়া দুই কারখানার গাজীপুরের আমান টেক্সটাইল লিমিটেডকে গত ২৭ সেপ্টেম্বর স্বীকৃতি দিয়েছে ইউনাইটেড স্টেটস গ্রিন বিল্ডিং কাউন্সিল। প্রতিষ্ঠানটিকে ৮৯ পয়েন্ট দিয়েছে ইউএসজিবিসি। এছাড়া ১৫ সেপ্টেম্বর স্বীকৃতি পেয়েছে আয়েশা ফ্যাশন লিমিটেড। ইউএসজিবিসি এই প্রতিষ্ঠানটিকে পয়েন্ট দিয়েছে ৬৪। এর মধ্যে দিয়ে দেশের পোশাক খাতে মোট পরিবেশবান্ধব প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৭৩-এ।

সবুজ পোশাক কারখানা ভবনের বাংলাদেশ বিশ্বের শীর্ষস্থানীয়। বাংলাদেশের ৫৪টি পোশাক কারখানা প্লাটিনাম রেটিং, ১০৫টি গোল্ড রেটিং ও ১০টি সিলভার রেটিং পেয়েছে। এছাড়া চারটি কারখানা কোনও রেটিং পায়নি, তবে সনদ পেয়েছে।

দেশে প্রথমবারের মতো ২০১১ সালে একটি কারখানা ইউএস গ্রিন বিল্ডিং কাউন্সিলের এই লিড (লিডারশিপ ইন এনার্জি অ্যান্ড এনভাইরনমেন্টাল ডিজাইন) সনদ পায়। এরপরের বছর পায় আরও ২টি কারখানা। পরে ২০১৩ সালে ৪ টি, ২০১৪ সালে ৩টি, ২০১৫ সালে ১১টি, ২০১৬ সালে ১৬টি, ২০১৭ সালে ১৮টি, ২০১৮ সালে ২৪টি, ২০১৯ সালে ২৮টি, ২০২০ ও ২০২১ সালে ২৪টি করে কারখানা এই স্বীকৃতি পেয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ
ebarta24.com © All rights reserved. 2021