শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:১২ অপরাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ
পঁচাত্তরের খুনিদের দায়মুক্তি অধ্যাদেশ “ধর্ষিত” মামুনের স্ক্রিনশপ জালিয়াতি ফাঁস : ইলিয়াস সহ সুশীলদের কটাক্ষ জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ : বিশ্ব সভায় বাংলা ভাষার প্রথম আনুষ্ঠানিক প্রতিনিধিত্ব গার্ডিয়ানে প্রকাশিত শেখ হাসিনার নিবন্ধ: ‘আ থার্ড অফ মাই কান্ট্রি ওয়াজ জাস্ট আন্ডারওয়াটার। দ্য ওয়ার্ল্ড মাস্ট অ্যাক্ট অন ক্লাইমেট’ হেফাজতের কর্তৃত্ব যাচ্ছে দেওবন্দের কাফের ঘোষিত জামায়াতের কব্জায় ! অনলাইনে মিলছে টিসিবির পেঁয়াজ আজ টিউলিপ সিদ্দিকের জন্মদিন বাংলাদেশের সঙ্গে রাজনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক বাড়াতে চায় যুক্তরাষ্ট্র প্রধানমন্ত্রীকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর ফোন ফ্রন্টিয়ার, ইমার্জিং ও ডেভেলপড মার্কেট রিটার্নে সবার ওপরে বাংলাদেশ

“ইউ আর আওয়ার ম্যান, পাকিস্তানী বাই বার্থ” – তারেককে কর্নেল নাদিম

ইবার্তা ডেস্ক
আপডেট : বুধবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৭

লন্ডন প্রতিনিধি: গত সোমবার বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের জন্মদিন উপলক্ষ্যে গ্রেটার লন্ডন, কিংস্টনের কটসওল্ড সংরক্ষিত এলাকার বাসভবনে আয়োজিত ঘরোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত পাকিস্তানের কূটনীতিক মুহাম্মদ আইয়ুব ও আইএসআই-এর কর্নেল সর্দার নাদিম ইকবাল খানের সঙ্গে তারেকের একটি একান্ত বৈঠক হয়। এতে আরও উপস্থিত ছিলের পারভেজ মল্লিক ও কয়সর আহমেদ নামে বিএনপির দুই নেতা।

গতকাল তারেকের সাথে বৈঠকে অংশগ্রহণকারী বিএনপি নেতা কয়সর এম আহমেদ টিফফানি কফি শপ নামের একটি ক্যাফেতে প্রবাসী দুজন সাংবাদিকের সাথে আলাপকালে উচ্ছসিত হয়ে জানান, কর্নেল নাদিম ও কূটনীতিক আইয়ুবকে তারেক রহমান পাকিস্তানের প্রতি জিয়ার আনুগত্যের কথা উল্লেখ করে নিজের জন্ম পাকিস্তানের করাচীতে হয়েছে বলে উল্লেখ করেন।
জবাবে আইএসআই কর্মকর্তা কর্নেল নাদিম ইকবাল বলেন, “তারেক, ইউ আর আওয়ার ম্যান, পাকিস্তানী বাই বার্থ।”

উল্লেখ্য, খালেদা জিয়ার জীবনী থেকে জানা যায়, জিয়ার সাথে তার বিবাহ সম্পন্ন হয় ১৯৬০ সালে। ১৯৬৫ সালে খালেদা জিয়া করাচীতে যান এবং ১৯৬৯ সালের মার্চ পর্যন্ত সেখানেই ছিলেন। তারেক রহমানের জন্ম হয় ১৯৬৫ এর ২০ নভেম্বর করাচীতে। পাকিস্তানের নাগরিকত্ব আইন মোতাবেক ১৯৬০ সালের পর সেখানে জন্ম নেয়া সকলেই পাকিস্তানে নাগরিক।

তারেক রহমানের সাথে অনুষ্ঠিত বৈঠকে পাকিস্তানের পক্ষ থেকে কূটনৈতিক, জঙ্গিবাদী ও আর্থিক সহায়তাসহ সব ধরণের সহযোগিতার আশ্বাস দেয়া হয়।


আরও সংবাদ