1. alamin@ebarta24.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
  2. online@ebarta24.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  3. reporter@ebarta24.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
  4. news@ebarta24.com : নিউজ এডিটর : নিউজ এডিটর
আত্মনির্ভর হচ্ছে দেশীয় সিরামিক টাইলস শিল্প - ebarta24.com
  1. alamin@ebarta24.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
  2. online@ebarta24.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  3. reporter@ebarta24.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
  4. news@ebarta24.com : নিউজ এডিটর : নিউজ এডিটর
আত্মনির্ভর হচ্ছে দেশীয় সিরামিক টাইলস শিল্প - ebarta24.com
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৩:৫০ পূর্বাহ্ন

আত্মনির্ভর হচ্ছে দেশীয় সিরামিক টাইলস শিল্প

বিশেষ প্রতিবেদক
  • সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ২১ নভেম্বর, ২০২২

দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। সমৃদ্ধ হচ্ছে দেশের অর্থনীতি। পরিধি বাড়ছে অর্থনীতি ও বাজেটের। একই সঙ্গে মানুষের জীবনমানের উন্নতি ঘটছে। পরিবর্তন আসছে রুচির। দেশের আবাসন ও গৃহস্থালি খাতেও পড়ছে সেই রুচিশীলতার প্রভাব। ধীরে ধীরে আবাসন খাতে ব্যবহার বাড়ছে সিরামিক টাইলসের। আগে চাহিদা মেটানো হতো আমদানি করে। এখন সেই বাজার দখল করছে দেশে উৎপাদিত টাইলস। ব্যবসায়ীরা বলছেন, বিলাসী পণ্য হিসেবে সিরামিক টাইলস আমদানিতে শুল্ক বাড়ানোয় দেশি শিল্পে ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে। অপেক্ষাকৃত কম দামে মিলছে দেশীয় পণ্য।

টাইলস বর্তমানে সহজলভ্য হলেও একসময় ব্যবহার হতো অভিজাত ও বিলাসী সামগ্রী হিসেবে। দেশে এই বিলাসী পণ্যের চাহিদা মেটানো হতো বিদেশ থেকে আমদানি করে। কিন্তু সময় পাল্টেছে। দেশেই উৎপাদন হতে শুরু করেছে উৎকৃষ্ট মানের টাইলস। বাংলাদেশে সিরামিক টাইলস শিল্প প্রায় ৬০ বছরের পুরোনো হলেও সম্প্রতি এ খাতে আসছে নতুন নতুন বিনিয়োগ। তৈরি হচ্ছে মানসম্মত টাইলস ও সিরামিক পণ্য, যা আন্তর্জাতিক বাজারের অন্যসব পণ্যের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করছে। ক্ষেত্রবিশেষে রপ্তানি হচ্ছে দেশের বাইরেও।

চট্টগ্রামের কাজির দেউড়ি পুরোনো বিমান অফিস ও স্টেডিয়াম মার্কেট এলাকায় রয়েছে সিরামিক টাইলস পণ্যের বিশাল বাজার। যেখানে রয়েছে শত শত দোকান। ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, চট্টগ্রামে সিরামিক টাইলস আমদানি করতেন প্রায় ২৫-৩০ জন ব্যবসায়ী। বর্তমানে দেশীয় শিল্পে উৎসাহিত করতে সরকার আমদানিতে শুল্ক বাড়িয়ে দেওয়ায় ব্যবসায়ীরা সিরামিক টাইলস আমদানিবিমুখ হচ্ছেন। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ, বৈদেশিক মুদ্রার সংকট ও বিলাসী পণ্য হিসেবে সিরামিক টাইলস আমদানিতে নিরুৎসাহিত করার কারণেও কমে এসেছে আমদানি।

স্টেডিয়াম মার্কেট (চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থা শপিং কমপ্লেক্স) এলাকার সিরামিক টাইলস ব্যবসায়ী ভিক্টর টাইলসের তানজীমুল আহমেদ তানিম বলেন, বর্তমানে বৈশ্বিক পরিস্থিতি খারাপ। তাছাড়া সরকার দেশীয় প্রযুক্তিকে সুবিধা দিতে ট্যাক্স বাড়িয়ে দিয়েছে। ডলারের মূল্য বেড়েছে অত্যধিক। রেডি সিরামিক টাইলসে ট্যাক্স বেশি। ডলারের মূল্য বেশি থাকায় আমদানি করা সিরামিক টাইলসের দাম অত্যধিক বেড়ে যাচ্ছে। এতে আমদানি পণ্যের মূল্য দেশীয় একই পণ্যের চেয়ে পড়ছে বেশি। যে কারণে রেডি সিরামিক টাইলস আমদানিকারকরা প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে পারছেন না। এতে আমদানি কমে যাচ্ছে। চট্টগ্রামে আগে যেখানে ২৫-৩০ জন সিরামিক টাইলস আমদানিকারক ছিলেন, এখন আছেন পাঁচ-ছয়জন। দেড় বছর ধরে আমরাও আমদানি একেবারে কমিয়ে দিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, এখন দেশে গুণগত মানসম্পন্ন সিরামিক টাইলস পণ্য উৎপাদিত হচ্ছে। অনেক ক্ষেত্রে বিদেশি পণ্যের চেয়েও মানসম্পন্ন পণ্য তৈরি হচ্ছে দেশে। ডিজাইনেও বিদেশি টাইলসের চেয়ে দেশি টাইলস প্রতিযোগিতায় এগিয়ে। এতে ব্যবহারকারীরা দেশীয় সিরামিক টাইলসের দিকে ঝুঁকছে। এটি আমাদের জন্য ইতিবাচক। কারণ আমদানি কমে গেলে ডলার সাশ্রয় হবে। দেশের বর্তমান সংকটকালীন অর্থনীতিতেও ইতিবাচক প্রভাব পড়ছে।

বিগত ২৪ বছর ধরে টাইলস আমদানির সঙ্গে জড়িত মো. মোবারক হোসেন। কাজির দেউড়ি এলাকায় চার্মিং হোম টাইলস স্যানিটারি নামে প্রতিষ্ঠান রয়েছে তার। সম্প্রতি আমদানি পণ্যের দাম বাড়ায় বিদেশি টাইলসের পাশাপাশি দেশি টাইলস বিক্রিতে জড়িয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, বর্তমানে দেশীয় অনেক প্রতিষ্ঠান সিরামিক টাইলস উৎপাদন করছে। একসময় আমদানি বেশি হতো। এখন স্থানীয় শিল্প উন্নত হওয়ায় আমদানি কমে যাচ্ছে। তাছাড়া দেশের সিরামিক টাইলসের গুণগত মানও ভালো হয়েছে। বিদেশি টাইলসের চেয়ে একই মানের টাইলস প্রায় অর্ধেক দামে পাওয়া যাচ্ছে বাজারে। যে কারণে লোকজন দেশি টাইলস ব্যবহারে উৎসাহিত হচ্ছেন।

বাড়ির মেঝেতে পাকা ঢালাই বা মোজাইকের পরিবর্তে এখন সিরামিক টাইলস লাগানোর আগ্রহ বেশি ভোক্তাদের। গ্রামাঞ্চলেও ব্যবহার বাড়ছে সিরামিক টাইলসের। ফলে এ শিল্পের পরিধি বাড়ছে। বিনিয়োগ নিয়ে আসছেন বড় বড় শিল্প উদ্যোক্তা। পাঁচ বছর আগেও যেখানে পণ্যটির বাজারের পরিধি ছিল সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকার কাছাকাছি, বর্তমানে তা পাঁচ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। সিরামিক, টাইলস, টেবিলওয়্যারসহ আন্তর্জাতিক মানের পণ্য তৈরি করছে দেশীয় প্রায় ৭০টি কোম্পানি। দেশি সিরামিক শিল্পে মূলত স্যানিটারি, টাইলস ও টেবিলওয়্যার উৎপাদন করে কারখানাগুলো। এর মধ্যে স্যানিটারিওয়্যার তৈরি করে ১৮টি প্রতিষ্ঠান, টেবিলওয়্যার উৎপাদন করে ২০টি এবং বাকি ৩০টির অধিক প্রতিষ্ঠান টাইলস উৎপাদনে যুক্ত। শুধু টাইলস উৎপাদনেই বিনিয়োগ প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়েছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ী উদ্যোক্তারা। বছরে হাজার কোটি টাকার বেশি টাইলস আমদানি হয়। বিশেষ করে চীন, ভারত থেকে বেশি সিরামিক পণ্য আমদানি হয়, যা ধীরে ধীরে হ্রাস পাচ্ছে।

এদিকে চাহিদা তৈরি হওয়ায় জায়ান্ট বিনিয়োগকারীর পাশাপাশি ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাও তৈরি হয়েছে সিরামিক টাইলস শিল্পে। চট্টগ্রামে তিন ভাই মিলে গড়ে তুলেছেন নুর উদ্দিন সিরামিক নামে একটি প্রতিষ্ঠান। তাদের একজন নুর উদ্দিন টাইলসের পরিচালক মোহাম্মদ বোরহান বলেন, এখন আমাদের দেশে ভালো মানের সিরামিক টাইলসের পণ্য তৈরি হচ্ছে। ছোট ছোট অনেক উদ্যোক্তা তৈরি হয়েছে। বিশেষ করে পার্কিং টাইলস, রুফ টাইলস তৈরি হচ্ছে ছোট ছোট কারখানায়। যত দিন গড়াচ্ছে, এসব পণ্যের চাহিদাও বাড়ছে। এতে রেডি সিরামিক টাইলসের আমদানিনির্ভরতা কমছে। তবে আমাদের সিরামিক শিল্পের কাঁচামাল আমদানি করতে হয়। সম্প্রতি বৈশ্বিক মন্দা ও ডলারের দাম বেড়ে যাওয়ার কারণে আমাদের সিরামিক শিল্পের কাঁচামালের দামও বেড়ে গেছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও সংবাদ
ebarta24.com © All rights reserved. 2021