1. অন্যরকম
  2. অপরাধ বার্তা
  3. অভিমত
  4. আন্তর্জাতিক সংবাদ
  5. ইতিহাস
  6. এডিটরস' পিক
  7. খেলাধুলা
  8. জাতীয় সংবাদ
  9. টেকসই উন্নয়ন
  10. তথ্য প্রযুক্তি
  11. নির্বাচন বার্তা
  12. প্রতিবেদন
  13. প্রবাস বার্তা
  14. ফিচার
  15. বাণিজ্য ও অর্থনীতি

ঢাকা-খুলনা রেলরুটে ‘নকশি কাঁথা’ কমিউটার, ভাড়া ২১০

নিউজ এডিটর : ইবার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকম
বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২৩

স্বপ্নের পদ্মা সেতু হয়ে খুলনা থেকে ‘সুন্দরবন এক্সপ্রেসের’ পাশাপাশি শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) থেকে ‘নকশি কাঁথা’ কমিউটার ট্রেন চলবে রাজধানীতে। এ লক্ষ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। আর স্বপ্নের এই ট্রেনে মাত্র ২১০ টাকা ভাড়ায় রাজধানীতে পৌঁছার খবরে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন যাত্রীরা।

সংশ্লিষ্টরা জানান, পদ্মা সেতু হয়ে গত পহেলা নভেম্বর থেকে শুরু হয় খুলনা থেকে রেল চলাচল। নিরাপদ, সহজ ও আরামদায়ক হওয়ায় প্রতিনিয়ত এই রুটে বাড়তে থাকে যাত্রীর চাপ। দাবি ওঠে আরও একটি ট্রেন যুক্ত করার। এক মাসের মধ্যেই পদ্মা সেতু হয়ে খুলনা-ঢাকা রুটে নতুন ট্রেন চালুর সিদ্ধান্ত নেয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

শুক্রবার থেকে এই রুটে চলাচল করবে নকশি কাঁথা কমিউটার। যেটি আগে মেইল ট্রেন হিসেবে খুলনা থেকে গোয়ালন্দ রুটে চলাচল করতো। রাত সাড়ে ১১টায় খুলনা রেলস্টেশন থেকে ছেড়ে ২৫টি স্টেশনে যাত্রা বিরতি দিয়ে ঢাকায় পৌঁছাবে। আর মাত্র ২১০ টাকায় খুলনা থেকে পৌঁছানো যাবে রাজধানীতে।

একটি রেল যুক্ত হওয়ায় দারুণ খুশি ব্যাংক কর্মকর্তা নাজমুল হোসেন। তিনি জানান, দাফতরিক কাজে প্রায়ই যেতে হয় রাজধানীতে। তবে রাতে ট্রেনে টিকিট পেতে বিরম্বনায় পড়তে হতো। প্রায়ই নিজের চাহিদা মতো টিকিট সংগ্রহ করতে পারতেন না তিনি। তবে এখন আর কষ্ট হবে না।

তিনি বলেন, প্রতিদিন দুটি ট্রেন খুলনা থেকে ঢাকায় যাবে, এটা আমাদের জন্য দারুণ স্বস্তির খবর। টিকিটপ্রাপ্তি সহজ হলো, এখন এর কোচ সংখ্যা বাড়ানো ও সেবার মানও বাড়ানো প্রয়োজন।

শ্যমলী দাসের গ্রামের বাড়ি খুলনায়। রাজধানী থেকে প্রায়ই খুলনায় বাবার বাড়িতে বেড়াতে যান তিনি। দুটি ট্রেন চলার খবরে তিনিও দারুণ খুশি।

এ নিয়ে শ্যমলী দাস বলেন, এতো (২১০) অল্প টাকায় ঢাকা থেকে পদ্মা সেতু পার হয়ে খুলনা আসা যাবে এটা ভাবতে পারছি না। সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ দিচ্ছি।

ট্রেনটি ইজারার মাধ্যমে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এনআরএসআর ট্রেডিং চালাবে। অগ্রিম নয়, যাত্রা শুরুর ঘণ্টা খানেক আগে এর টিকিট সংগ্রহ করা যাবে প্লাটফরম থেকে বলে জানান প্রতিষ্ঠানটির প্রতিনিধি মো. আলমগীর হোসেন।

তিনি বলেন, আমাদের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। এই ট্রেনটি নিয়ে ঢাকায় যাওয়ার পথে আমরা সর্বোচ্চ ২৫টি স্টেশনে যাত্রা বিরতি করবো। এর টিকিটের মূল্যও রাখা হয়েছে অনেক কম। তাতে করে সব ধরনের যাত্রী এ ট্রেনটিতে যাতায়াত করতে পারবেন।

এ বিষয়ে খুলনা রেলস্টেশনের স্টেশন মাস্টার মো. মাসুদ রানা বলেন, নতুন এই ট্রেনটি নিয়ে মানুষের মধ্যে ব্যাপক সাড়া পড়েছে। আমাদেরও সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। ট্রেনটি ২৫টি স্টেশনে যাত্রাবিরতি করায় আরও অনেক বেশি মানুষের সঙ্গে সম্পৃক্ত হবে। পাশাপাশি টিকিটের সাশ্রয়ী মূল্য হওয়ায় সব ধরনের যাত্রী এই রেলে যাতায়াত করতে পারবেন।

নকশি কাঁথা ট্রেনটিতে ৬টি কোচ থাকবে, যাতে ৬০০ যাত্রী যাতায়াত করতে পারবেন। পদ্মা সেতু রুটের পাশাপাশি খুলনা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু হয়েও ‘চিত্রা এক্সপ্রেস’ নামে একটি ট্রেন নিয়মিত যাতায়াত করছে ঢাকায়।


সর্বশেষ - জাতীয় সংবাদ

নির্বাচিত

রাজশাহীতে ৭ কোটি টাকার মধু বাণিজ্যের সম্ভাবনা

দ্ব্যর্থহীন প্রশংসনীয় অগ্রগতিতে বাংলাদেশ 

আফগানিস্তানের এবার প্রকাশ্যে বাদ্যযন্ত্র পোড়াল তালেবান প্রশাসন

অর্থহীন অস্ত্র প্রতিযোগিতা বন্ধ করতে বিশ্ব নেতাদের প্রতি শেখ হাসিনার আহ্বান

তিন আরব দেশ থেকে কেনা হবে ৬৩৯ কোটি টাকার সার 

জামিনে বেরিয়ে গেছে ৭২.৪০ শতাংশ জঙ্গি

বঙ্গবন্ধু টানেল: পর্যটন, শিল্পায়ন, অর্থনীতি ও যোগাযোগ ব্যবস্থায় যোগ হবে নতুন মাত্রা

বৈশ্বিক মহামারী মোকাবিলায় দক্ষ হাতে সুদূরপ্রসারী উদ্যোগ নেওয়ায় ধন্যবাদ প্রধানমন্ত্রী

শহীদ সাংবাদিক সেলিনা পারভীন স্মরণে

চট্টগ্রাম বন্দর: ৮২ শতাংশ জাহাজই দিনে দিনে ভিড়ছে