রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:৪৫ পূর্বাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ
পঁচাত্তরের খুনিদের দায়মুক্তি অধ্যাদেশ “ধর্ষিত” মামুনের স্ক্রিনশপ জালিয়াতি ফাঁস : ইলিয়াস সহ সুশীলদের কটাক্ষ জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ : বিশ্ব সভায় বাংলা ভাষার প্রথম আনুষ্ঠানিক প্রতিনিধিত্ব গার্ডিয়ানে প্রকাশিত শেখ হাসিনার নিবন্ধ: ‘আ থার্ড অফ মাই কান্ট্রি ওয়াজ জাস্ট আন্ডারওয়াটার। দ্য ওয়ার্ল্ড মাস্ট অ্যাক্ট অন ক্লাইমেট’ হেফাজতের কর্তৃত্ব যাচ্ছে দেওবন্দের কাফের ঘোষিত জামায়াতের কব্জায় ! অনলাইনে মিলছে টিসিবির পেঁয়াজ আজ টিউলিপ সিদ্দিকের জন্মদিন বাংলাদেশের সঙ্গে রাজনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক বাড়াতে চায় যুক্তরাষ্ট্র প্রধানমন্ত্রীকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর ফোন ফ্রন্টিয়ার, ইমার্জিং ও ডেভেলপড মার্কেট রিটার্নে সবার ওপরে বাংলাদেশ

মুখে তিন তালাক বললেই হবে তিন বছরের জেল

ইবার্তা ডেস্ক
আপডেট : মঙ্গলবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৭

অনলাইন ডেস্কঃ 

তিন তালাকের শাস্তি হিসেবে তিন বছরের জেলের বিধান করতে যাচ্ছে ভারত সরকার। ইতোমধ্যে এ সংক্রান্ত আইনের খসড়া প্রণয়ন করেছে দেশটি। এই আইনে ভুক্তভোগী নারীদের সহযোগিতার ব্যবস্থাও রাখা হবে বলে জানা গেছে।

এর আগে গত আগাস্টে তিন তালাকের এই বিধান অবৈধ ঘোষণা করে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। কিন্তু এরপরও সেখানে তিন তালাকের প্রচলন চলে আসছিল বলে সরকারি সূত্র জানিয়েছে।

বিবিসি জানায়, মুসলিম নারীদের সুরক্ষায় বিবাহের অধিকার বিলের খসড়াটি আলোচনার জন্য আঞ্চলিক সরকারের কাছে পাঠানো হচ্ছে।

এ বিষয়ে প্রেস ট্রাস্ট অফ ইন্ডিয়া জানিয়েছে, সুপ্রিম কোর্টের রয়ে সঙ্গে এই আইনটি স্পষ্টভাবে তিন তালাক বন্ধ করতে এবং ‘অস্তিত্ব ভ্রাতা’ ও সাজা ভোগের ব্যবস্থার ক্ষেত্রে সহায়ক হবে।

সরকারের উচ্চ পর্যায়ের একজন বলেন, ‘কোন স্ত্রীকে যদি স্বামী বাড়ি থেকে বের হয়ে যেতে বলে তবে সেসব নারীর আইনি সুরক্ষার জন্য’ এসব বিধান।

তালাক উচ্চারণের পাশাপাশি লিখিত বা অন্য সব মাধ্যমও বাতিলের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এছাড়া এই আইনের খসড়ায় এই অভিযোগে অভিযুক্ত ব্যক্তি জামিন অযোগ্য হবে বলে বিধান রাখা হয়েছে।

চলতি ডিসেম্বরে বসতে যাওয়া ভারতীয় সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে এই আইন পাশ হতে যাচ্ছে বলে সংবাদ মাধ্যমগুলো জানিয়েছে।


আরও সংবাদ