[…]রহস্যময় পিরামিডে গোপন কক্ষ! মূল্যবান সম্পত্তি খোঁজ! […]রহস্যময় পিরামিডে গোপন কক্ষ! মূল্যবান সম্পত্তি খোঁজ!

রহস্যময় পিরামিডে গোপন কক্ষ! মূল্যবান সম্পত্তি খোঁজ!

ইবার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকম:
আপডেট সময়:আগস্ট ৭, ২০১৭ , ৮:১৩ পূর্বাহ্ন
বিভাগ: বিজ্ঞান ও গবেষণা

ইবার্তা ডেস্ক: মিশরের গিজা পিরামিডকে নিয়ে রহস্য ক্রমশ ঘনীভূত হচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে এর ভিতরে লুকিয়ে রাখা আছে বহুমূল্যের সম্পত্তি।

বিশ্বের সর্বাধিক প্রাচীন পিরামিড গিজা পিরামিড ৪০০০ হাজার বছরের পুরনো। উচ্চতা ৪৭৯ ফুট। স্থানীয়ভাবে এটি খুফু পিরামিড নামে পরিচিত।

প্রত্নতত্ত্ববিদরা দাবি করছেন, মিশরের দ্য গ্রেট গিজা পিরামিডের ভিতরে কোনও রহস্য রয়েছে। এতে গোপন কক্ষও আছে! বিজ্ঞানীরা সম্প্রতি এর অনুসন্ধানে স্ক্যান পিরামিড নামে একটি মিশন শুরু করেছে।

একটি চেম্বার রয়েছে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা। বিজ্ঞানী মেহদি তায়োবি বলেন, গোপন কক্ষটি খোঁজার কাজ চলছে।

স্ক্যান পিরামিড মিশনে ব্যবহার করা হচ্ছে থার্মোগ্রাফি প্রযুক্তি। তাপের সাহায্যে পিরামিডের ভেতরে কোথায় কি রয়েছে তাও সন্ধানের চেষ্টা করছেন বিজ্ঞানীরা।

মিশরের কনিষ্ঠতম ফ্যারাও তুতেনখামেনের মমি আবিষ্কারের সময় উদ্ধার হয়েছিল বিপুল সম্পত্তি। রানি নেফারতিতির সমাধিও আবিষ্কৃত হবে বলে আশা করছেন তারা। মিশরের ইতিহাসে উল্লেখ রয়েছে, ফ্যারাও আকেনাতেনের স্ত্রী নেফারতিতি জীবিত থাকাকালীন খুব শৌখিন ছিলেন। তাই তার সমাধিস্থলে মূল্যবান অনেক কিছু থাকবে বলে প্রত্নতত্ত্ববিদদের বদ্ধমূল ধারণা।